প্রবাস

আইনজীবী সারোয়ার হোসেনের মৃত্যু বার্ষিকীতে নিউ ইয়র্কবাসীর শ্রদ্ধা

নিউ ইয়র্ক পুলিশ বিভাগের (এনওয়াইপিডি) ডিটেকটিভ জামিল সারোয়ার জনির বাবা।

আজ পিরোজপুর জেলা জজ ও দায়রা কোর্টের সিনিয়র আইনজীবী আলহাজ্ব সারোয়ার হোসেনের প্রথম মৃত্যু বার্ষিকী। তাঁর মৃত্যু বার্ষিকীতে তাঁকে শ্রদ্ধা জানিয়ে রুহের মাগফিরাত কামনা করেছেন নিউ ইয়র্কে বসবাসরত পিরোজপুরের প্রবাসিরা।

আলহাজ্ব সারোয়ার হোসেন নিউ ইয়র্ক পুলিশ বিভাগের (এনওয়াইপিডি) ডিটেকটিভ জামিল সারোয়ার জনির বাবা।

আলহাজ্ব সারোয়ার হোসেন যুক্তরাষ্ট্রের নাগরিক। গেল বছর তিনি নিউ ইয়র্কে তার ছেলের বাড়িতেই ছিলেন। ডিটেকটিভ জামিল সারোয়ার বাংলাদেশে যান ছুটিতে। তারপর স্ত্রী ও কন্যাকে বাংলাদেশে রেখে বাবা-মাকে সঙ্গে নিয়ে নিউ ইয়র্কে ফিরে কাজে যোগ দেন। পেশাগত দায়িত্ব পালন করতে গিয়ে ডিটেকটিভ জামিল করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হন। কিন্তু যখন করোনা পজিটিভ জানতে পারেন, ক্ষতি যা হওয়ার হয়ে গেছে। ঘরে বসে থেকেই করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ডিটেকটিভ জামিলের বাবা সারোয়ার হোসেন।

অ্যাডভোকেট সারোয়ার হোসেনকে মারাত্মক অসুস্থ অবস্থায় হাসপাতালের নেওয়ার পর স্থানীয় সময় বুধবার দুপুরে বাবা অ্যাডভোকেট সারোয়ার হোসেন মারা যান। তাঁকে নিউ ইয়র্ক লং আইল্যান্ডের ওয়াশিংটন মেমোরিয়াল মুসলিম কবরস্থানে দাফন করা হয়।

অ্যাডভোকেট সারোয়ার হোসেন পিরোজপুর শহরের সিনিয়র আইনজীবী ছিলেন। তার সহধর্মিণী রেনু সুলতানা পিরোজপুর সরকারি মহিলা কলেজের অবসরপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ। ছোট ছেলে জনির আবেদনে তারা যুক্তরাষ্ট্রে ইমিগ্র্যান্ট হয়েছেন। তিনি পিরোজপুর মানবাধিকার সংস্থার সাধারন সম্পাদক ছিলেন। ছিলেন বাংলাদেশ মানসিক প্রতিবন্ধী কল্যাণ সমিতির সভাপতি। এছাড়াও তিনি আরও বহু সংগঠনের সঙ্গে জড়িত ছিলেন।

আলহাজ্ব সারোয়ার হোসেনের প্রথম মৃত্যু বার্ষিকীতে শাহ্‌ ফাউন্ডেশন, রূপসী বাংলা এন্টারটেইনমেন্ট, ও বাংলা চ্যানেলের প্রতিষ্ঠাতা প্রেসিডেন্ট শাহ্‌ জে. চৌধুরী শ্রদ্ধা জানিয়েছেন।❐

Show More

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button

Adblock Detected

Please, Deactivate The Adblock Extension