এখন থেকে বিদেশি গর্ভবতী নারীরা যুক্তরাষ্ট্রে ভ্রমণ করতে পারবেন না

বিদেশি কোন গর্ভবতী নারী এখন থেকে আর যুক্তরাষ্ট্রে ভ্রমণ করতে পারবেন না। শুক্রবার থেকে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের আদেশে এই নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে। খবর সিএনএন’র।
 
এর আগে যুক্তরাষ্ট্রে জন্ম নিলেই সহজেই নবজাতকরা পেয়ে যেত দেশটির পরিচয়পত্র। আর এই সুযোগে অনেক দেশের নাগরিকরা যুক্তরাষ্ট্রে এসে তাদের সন্তান জন্ম দিত। যা যুক্তরাষ্ট্রে বার্থ টুরিজম নামে পরিচিত।
 
এই বিষয়ে হোয়াইট হাউসের পক্ষ থেকে দেয়া এক বিবৃতিতে বলা হয়, আমেরিকান নাগরিকত্বের অখণ্ডতা রক্ষা করতে হবে। বার্থ টুরিজমের কারণে মূল্যবান হাসপাতালগুলোতে রোগীদের চাপ বেড়ে যায় যা হাসপাতালগুলোর জন্য হুমকি ।
 
তবে হোয়াইট হাউসের পক্ষ থেকে বলা হয়, যেসব দেশ মার্কিন ভিসায় ছাড়া পায় তাদের ক্ষেত্রে এই নিষেধাজ্ঞা কার্যকর হবে না। বিশ্বে ৩৯টি দেশ রয়েছে যারা মার্কিন ভিসায় ছাড় পায়। এর মধ্যে বেশিরভাগই ইউরোপীয় ইউনিয়নের দেশ।
 
অভিবাসন ঠেকাতে বদ্ধ পরিকর প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প প্রশাসন। এরই অংশ হিসেবে এ পদক্ষেপ নেওয়া হলো।
 
মার্কিন এক গবেষণা অনুযায়ী , ২০১৬ সাল থেকে ২০১৭ পর্যন্ত বার্থ টুরিজমের মাধ্যমে যুক্তরাষ্ট্রে ৩৩ হাজার শিশুর জন্ম দেয়া হয়েছে।
 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *