ঐতিহাসিক হোয়াইটওয়াশের প্রহর গুনছে দক্ষিণ আফ্রিকা

রূপসী বাংলা স্পোর্টস ডেস্ক: দক্ষিণ আফ্রিকা এবং হোয়াইটওয়াশের মধ্যে ব্যবধান মাত্র ২ উইকেটের। ভারতের ৪৯৭ রানের জবাবে ২ উইকেটে ৯ রান তুলে দ্বিতীয়দিনের খেলা শেষ করেছিল দক্ষিণ আফ্রিকা। আর তৃতীয়দিন ভারতীয় বোলারদের দাপটে প্রাণ ওষ্ঠাগত দক্ষিণ আফ্রিকা রাঁচিতেও প্রহর গুনছে লজ্জার হারের।

প্রথম ইনিংসে ১৬২ রানে গুটিয়ে যাওয়ার পর তৃতীয়দিন প্রোটিয়াদের ফলো-অন করানো ছাড়া দ্বিতীয় কিছু ভাবেননি ভারত অধিনায়ক বিরাট কোহলি। আর তৃতীয়দিনের শেষে দ্বিতীয় ইনিংসে ১৩২ রানে ৮ উইকেট হারিয়ে খাদের কিনারায় সফরকারী দল। অর্থাৎ, সব ঠিকঠাক থাকলে ভারতীয় বোলারদের কাছে চতুর্থদিন প্রথম ঘন্টাই যথেষ্ট বিপক্ষকে টেস্ট সিরিজে প্রথমাবার হোয়াইটওয়াশ করার জন্য।

উমেশ যাদবের ৩ উইকেট, মহম্মদ শামি, শাহবাজ নাদিম ও রবীন্দ্র জাদেজার ২টি করে উইকেটে ভর করে তৃতীয়দিন দক্ষিণ আফ্রিকার প্রথম ইনিংস ১৬২ রানে গুটিয়ে দেয় টিম ইন্ডিয়া। তৃতীয় দিনের শুরুতেই ক্যাপ্টেন ডু’প্লেসিকে (১) প্যাভিলিয়নে ফেরত পাঠিয়ে প্রোটিয়াদের আরও ব্যাকফুটে ঠেলে দেন উমেশ। মাত্র ১৬ রানে তিন উইকেটে হারায় দক্ষিণ আফ্রিকা। তবে চতুর্থ উইকেটে জুবের হামজা ও তেম্বা বাভুমা ৯১ রান যোগ করে প্রোটিয়াদের লড়াইয়ে ফেরান। কিন্তু হামজা আউট হতেই ভেঙে পড়ে প্রোটিয়াদের ব্যাটিং লাইন-আপ। ১২৯ রানে ৬ উইকেট হারিয়ে তৃতীয়দিন লাঞ্চে যায় দক্ষিণ আফ্রিকা।

দ্বিতীয় সেশনে ১৬২ রানে শেষ হয়ে যায় প্রোটিয়াদের প্রথম ইনিংস। ৩৩৫ রানে এগিয়ে থেকে দক্ষিণ আফ্রিকাকে ফলো-অন করানোর সিদ্ধান্ত নেয় টিম কোহলি। দ্বিতীয় ইনিংসেও যেন প্রথম ইনিংসেরই পুনরাবৃত্তি। ভারতীয় বোলারদের সামনে কোনওরকম প্রতিরোধ গড় তুলতে ব্যর্থ প্রোটিয়া ব্যাটসম্যানরা। এরমধ্যেই উমেশ যাদবের লাফিয়ে ওঠা বল ডিন এলগারের হেলমেটে আঘাত করে। প্রাথমিক চিকিৎসার পর ঘটনায় মাঠ ছাড়েন দক্ষিণ আফ্রিকা ওপেনার। কনকাশন রিপ্লেসমেন্ট হিসেবে পরবর্তীতে ব্যাট করতে নেমে দিনের শেষে সর্বোচ্চ ৩০ রানে অপরাজিত রয়েছেন ডি ব্রুইন। কিন্তু শামি, যাদবদের দাপটে দ্বিতীয় ইনিংসেও ইতিমধ্যে সাজঘরে ফিরেছেন দক্ষিণ আফ্রিকার ৮ জন ব্যাটসম্যান।

ভারতীয় বোলারদের দাপটে তৃতীয় দিনের শেষে দ্বিতীয় ইনিংসে দক্ষিণ আফ্রিকার রান ৮ উইকেটে ১৩২। ব্রুইনের অপরাজিত ৩০ রানের পাশাপাশি দ্বিতীয় ইনিংসে ২৭ রান আসে জর্জ লিনদের ব্যাট থেকে। ২৩ রান করেন ডেন পিয়েট। কনকাশন রিপ্লেসমেন্ট ব্রুইনের সঙ্গে দিনের শেষে ৫ রানে অপরাজিত অ্যানরিচ নর্তজে। ভারতীয় বোলারদের মধ্যে সর্বোচ্চ ৩ উইকেট মহম্মদ শামির ঝুলিতে, ২টি উইকেট পেয়েছেন উমেশ যাদব। একটি করে উইকেট পেয়েছেন জাডেজা ও অশ্বিন।

অর্থাৎ, তৃতীয়দিন বিপক্ষের ১৬ উইকেট তুলে নিয়ে টেস্টে প্রথমবার দক্ষিণ আফ্রিকাকে হোয়াইটওয়াশ করার লক্ষ্যে কোহলি অ্যান্ড কোং। সেজন্য চতুর্থদিন ভারতের প্রয়োজন মাত্র ২টি উইকেট।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *