যুক্তরাষ্ট্র

করোনা প্রতিরোধে ট্রাম্পের নেওয়া ব্যবস্থাগুলো চরম বিশৃঙ্খল: বারাক ওবামা

যুক্তরাষ্ট্রের সাবেক প্রেসিডেন্ট বারাক হোসেন ওবামা বলেছেন, মহামারী কোভিড-১৯ প্রতিরোধে প্রেসিডেন্ট ড্রোনাল্ড ট্রাম্পের নেওয়া ব্যবস্থাগুলো চরম বিশৃঙ্খল। ট্রাম্পের শাসনামলে আইনের শাসন চরমঝুঁকিতে রয়েছে বলেও মন্তব্য করেন তিনি।

বারাক ওবামা তার প্রশাসনের সাবেক কর্মকর্তাদের সঙ্গে আলাপকালে সম্প্রতি এসব মন্তব্য করেন।

রিপাবলিকান ডোনাল্ড ট্রাম্প ক্ষমতা গ্রহণের পর থেকে এখন পর্যন্ত সবচেয়ে কঠোর বিষোদগার করে ওবামা বলেন, দীর্ঘদিন ধরেই আমরা স্বার্থপরতা ও বিভাজনের সংস্কৃতি, জাতিগত দ্বন্দ্ব এবং অন্যকে শত্রু হিসেবে দেখার সংস্কৃতির বিরুদ্ধে লড়াই করছি। কিন্তু এখন এসবই যুক্তরাষ্ট্রের জনজীবনে বড় আকার ধারণ করেছে।

ডেমোক্র্যাট পার্টির সাবেক মার্কিন প্রেসিডেন্ট ওবামা এর আগেও করোনা মোকাবেলায় ট্রাম্প প্রশাসনের গৃহীত পদক্ষেপের সমালোচনা করে বলেছিলেন– এ মহামারী মোকাবেলায় ট্রাম্প প্রশাসনের বস্তুনিষ্ঠ কোনও পরিকল্পনা নেই।

চীনের হুবেই প্রদেশের উহান শহর থেকে ছড়িয়ে পড়া করোনাভাইরাসকে প্রথমে গুরুত্ব দেয় নি ট্রাম্প প্রশাসন। এটিকে সাধারণ ফ্লু হিসেবে চিহ্নিত করা ট্রাম্পের দেশেই সবচেয়ে বেশি থাবা বসিয়েছে করোনা। এ পর্যন্ত ৮০ হাজার ৪০ জন মানুষ মারা গেছেন। আক্রান্ত হয়েছেন ১৩ লক্ষ ৪৭ হাজারের বেশি মানুষ। এই মহামারী নিয়ন্ত্রণে বেশ কয়েকবারই বিভিন্ন সমস্যার দায় ওবামা প্রশাসনের ঘাড়ে চাপিয়েছেন ডোনাল্ড ট্রাম্প। এতদিন এ নিয়ে তেমন কোনও মন্তব্য করেন নি বারাক ওবামা।

তবে শুক্রবার ওবামা অ্যালামনাই অ্যাসোসিয়েশনের তিন হাজার সদস্যের (যারা তার প্রশাসনে কাজ করেছেন) সঙ্গে টেলিকনফারেন্সে আলাপকালে তাদের আগামী নির্বাচনে ট্রাম্পকে ক্ষমতাচ্যুত করতে ডেমোক্র্যাট প্রার্থী জো বাইডেনের পক্ষে কাজ করার অনুরোধ জানান তিনি।

ওবামা বলেন, এ নির্বাচন এতটা গুরুত্বপূর্ণ হওয়ার কারণ আমরা কোনও বিশেষ ব্যক্তি বা রাজনৈতিক দলের বিরুদ্ধে লড়াইয়ে যাচ্ছি না। আমরা স্বার্থপরতা, জাতিগত বিভক্তি ও একে অপরকে শত্রু ভাবার দীর্ঘমেয়াদি প্রবণতার বিরুদ্ধে লড়তে যাচ্ছি— আমেরিকানদের জীবনে এগুলো শক্ত বাধা হয়ে দাঁড়িয়েছে। এই একটি কারণেই বৈশ্বিক সংকট মোকাবেলা এতটা ফ্যাকাসে ও দাগযুক্ত হয়ে উঠেছে।

ট্রাম্পের নীতির কড়া সমালোচনা করে টানা দুই মেয়াদে দায়িত্বপালনকারী যুক্তরাষ্ট্রের সাবেক এ প্রেসিডেন্ট বলেন, ‘যখন এমন মানসিকতা থাকে— ‘আমার জন্য কী আছে’ আর ‘বাকিদের যা খুশি হোক’— যখন এমন মানসিকতায় আমাদের সরকার পরিচালিত হয়, এটি এক চরম বিপর্যয়।’

আগামী ৩ নভেম্বর অনুষ্ঠিতব্য যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে মুখোমুখি হচ্ছেন ক্ষমতাসীন রিপাবলিকান নেতা ডোনাল্ড ট্রাম্প ও ডেমোক্রেটিক পার্টির জো বাইজেন। নির্বাচনপূর্ব জরিপে বেশ কয়েকটি অঙ্গরাজ্যে এগিয়ে রয়েছেন বাইডেন।◉

আল জাজিরা ও সিএনএন

Show More

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button
Close
Close

Adblock Detected

Please, Deactivate The Adblock Extension