যুক্তরাষ্ট্র

ক্যাপিটল হিলে হামলাকারীরা ‘যুদ্ধের প্রস্তুতি নিয়ে এসেছিল’

যুক্তরাষ্ট্রের পার্লামেন্ট ভবন ক্যাপিটল হিলে হামলাকারীরা রীতিমতো ‘যুদ্ধের প্রস্তুতি নিয়ে এসেছিল’ দাবি করেছেন নিরাপত্তার দায়িত্বে থাকা সিনিয়র কর্মকর্তারা।

গত ৬ জানুয়ারির হামলার জন্য গোয়েন্দা ব্যর্থতাকে দায়ী করেছেন তারা। খবর বিবিসি বাংলা’র।

সিনেট কমিটিতে সাক্ষ্য দেওয়ার সময় ওই কর্মকর্তারা বলেন, ‘দাঙ্গাকারীরা অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে যুদ্ধের প্রস্তুতি নিয়ে এসেছিল।’

ডোনাল্ড ট্রাম্প সমর্থক বিক্ষোভকারীদের কংগ্রেস ভবনে ওই হামলার ঘটনায় অন্তত চারজন নিহত হয়েছিল।

ওই হামলার পর পদত্যাগ করা চারজন কর্মকর্তার মধ্যে তিনজন মঙ্গলবার হোমল্যান্ড সিকিউরিটি ও গভর্নমেন্ট অ্যাফেয়ার্স কমিটিতে সাক্ষ্য দেন।

ওয়াশিংটন ডিসি পুলিশের ভারপ্রাপ্ত প্রধান রবার্ট কোন্তে আইনপ্রণেতাদের বলেছেন, দাঙ্গাকারীদের দমনে পেন্টাগন থেকে ন্যাশনাল গার্ড ট্রুপস মোতায়েনে এত বেশি সময় লেগেছিল যা তাকে বিস্মিত করেছে।

ডেমোক্র্যাটরা ওই হামলায় উসকানি দেওয়ার জন্য ডোনাল্ড ট্রাম্পের বিরুদ্ধে অভিশংসনের উদ্যোগ নিয়েছিল। প্রতিনিধি পরিষদে তিনি অভিশংসিত হলেও পরে সিনেটে দুই-তৃতীয়াংশ ভোট না থাকায় শাস্তি থেকে রেহাই পেয়ে যান।

ক্যাপিটল পুলিশের সাবেক প্রধান স্টিভেন সান্ড বলেছেন, ক্যাপিটল হিল থেকে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীকে দূরে রাখার জন্য পাইপ বোমা রাখা হয়েছিল।

‘দাঙ্গাকারী গ্রুপ যখন সিকিউরিটি এরিয়ায় আসে, তারা অন্য সাধারণ প্রতিবাদকারীদের মতো করে আসেনি। এটি আর কখনোই দেখিনি আমি’ বলছিলেন তিনি।

এই কর্মকর্তা বলেন, ফেডারেল এজেন্সিগুলোর মধ্যে সমন্বিত ও পূর্ণাঙ্গ গোয়েন্দা তথ্যের ঘাটতি ছিল।

ক্যাপিটল পুলিশ ক্যাপ্টেন কারনেসা মেনডজা কমিটিতে বলেন, তার মুখে রাসায়নিক দ্রব্য ছুড়েছিল হামলাকারীরা যা থেকে এখনো তিনি সেরে ওঠেননি।

‘এক সঙ্গে এত কিছু হয়েছে যে আমার ১৯ বছরের ক্যারিয়ারে এটিই ছিল সবচেয়ে ভয়াবহ’ বলেন তিনি।

এই কর্মকর্তা মনে করেন, নিরাপত্তা বাহিনীর সঙ্গে আরও অন্তত দশগুণ লোকবল থাকা দরকার ছিল।

তিনি বলেন, এফবিআই রিপোর্টে হামলাকারীদের যুদ্ধের প্রস্তুতির কথা বলা হলেও সেটি হামলার আগে নিরাপত্তার দায়িত্বে থাকা কর্মকর্তার কাছে পৌঁছায়নি।

আর কর্মকর্তারা মিলিটারি ট্রুপস চাননি এমন রিপোর্ট প্রত্যাখ্যান করেন সাবেক সার্জেন্ট অ্যাট আর্মস পল ইরভিং।

সাবেক মিনেট সার্জেন্ট অ্যাট আর্মস মাইকেল স্টেনজার বলেন, ‘আমরা সবাই একমত যে ইন্টেলিজেন্স সাপোর্ট পাওয়া যায়নি।’

এদিকে সিনেটর আমি ক্লবুচার জানিয়েছেন, ন্যাশনাল গার্ড ট্রুপস ডাকার বিষয়ে আগামী সপ্তাহে পেন্টাগন কর্মকর্তাদের সাক্ষ্য দিতে ডাকা হবে।❐

Show More

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button

Adblock Detected

Please, Deactivate The Adblock Extension