খালেদা জিয়ার জন্য কেরানীগঞ্জ কারাগার ‘প্রস্তুত’

রূপসী বাংলা নিউজ ডেস্ক: দন্ডপ্রাপ্ত বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াকে রাখার জন্য কেরানীগঞ্জের ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগারের অভ্যন্তরে চার কক্ষ বিশিষ্ট একতলা একটি ভবন প্রস্তুত করা হয়েছে। প্রথম শ্রেণির বন্দি হিসেবে একতলা এই ভবনে বিশেষ কারাগারে রাখা হবে সাবেক এই প্রধানমন্ত্রীকে।

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় হাসপাতালে চিকিৎসা শেষ হলে খালেদা জিয়াকে আর নাজিমুদ্দিন রোডের পুরনো কারাগারে নেওয়া হবে না, তাকে স্থানান্তর করা হবে কেরানীগঞ্জে তিন বছর আগে চালু হওয়া নতুন কেন্দ্রীয় কারাগারে।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল মঙ্গলবার সচিবালয়ে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে এ কথা বলেন।

তিনি বলেন, নাজিমুদ্দিন রোডের পুরনো কেন্দ্রীয় কারাগারে যেখানে খালেদা জিয়াকে রাখা হয়েছিল, সেই ভবনটি সংস্কার করা হবে। কেরানীগঞ্জে মহিলা বন্দিদের কারাগারটি এতদিন প্রস্তুত ছিল না বলে তাকে পুরাতন জেলখানায় রাখা হয়েছিল। মহিলা কারাগার এখন প্রস্তুত। কাজেই তাকে এখন সেখানে রাখা যাবে।

নাজিমউদ্দিন রোডের পুরনো কেন্দ্রীয় কারাগার থেকে দুই বছর আগেই বন্দিদের কেরানীগঞ্জে নির্মিত নতুন কারাগার ভবনে সরিয়ে নেওয়া হয়েছিল। গতবছর ফেব্রুয়ারিতে জিয়া এতিমখানা দুর্নীতি মামলায় বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদার সাজা হলে তাকে ওই পুরনো কারাগারের একটি ভবনে রাখা হয়। সেখানে তিনিই ছিলেন একমাত্র বন্দি।

গত ১ এপ্রিল খালেদা জিয়াকে চিকিৎসার জন্য কারাগার থেকে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। তখন থেকেই তিনি কেবিন ব্লকের ৬২১ নম্বর কেবিনে আছেন। খালেদা জিয়া নাজিমউদ্দিন রোডের কারাগারে থাকার সময় সেখানে অস্থায়ী এজলাস বসিয়ে তার বিরুদ্ধে কয়েকটি মামলার বিচার চলছিল। সেসব মামলার বিচারে কেরানীগঞ্জের কারাগারেও আদালত বসানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *