‘তুমি হারোনি মৌসুমী, হেরেছে শিল্পীরা’

রূপসী বাংলা বিনোদন ডেস্ক: এবারের বাংলাদেশ চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির নির্বাচনের গোটা আমেজ ছিলো জনপ্রিয় অভিনেত্রী মৌসুমী। কারণ এবার মৌসুমী জিতলেই নতুন ইতিহাস তৈরি হতো। মৌসুমী জয়ী হলে প্রথমবারের মতো শিল্পী সমিতি পেতো কোনো নারী নেতৃত্ব। ভোট যুদ্ধে শেষ পর্যন্ত পরাজয় বরণ করতে হয়েছে ‘কেয়ামত থেকে কেয়ামত’ ছবির এই নায়িকাকে।

শিল্পী সমিতির নির্বাচনে ২২৭ ভোট পেয়ে দ্বিতীয়বারের মতো নির্বাচিত হয়েছেন মিশা সওদাগর এবং মৌসুমী পেয়েছেন ১২৫ ভোট।

রোববার মৌসুমীর স্বামী জনপ্রিয় অভিনেতা ওমর সানী ফেসুবকে লেখেন, ‘তুমি হারোনি মৌসুমী, হেরেছে শিল্পীরা। তুমি প্রিয়দর্শিনী ছিলা, কিন্তু পুরো বাংলাদেশের মানুষ পুরো চলচ্চিত্রের ৮০ ভাগ মানুষ, তোমাকে বানিয়েছে অগ্নিকন্যা,,,। তোমার মুখটা যেন সমস্ত শিল্পীদের কান্না। সমস্ত ভক্তদের কান্না।’

ফলাফল ঘোষণার পর ওমর সানী বলেছিলেন, ‘ফলাফল যা হয়েছে তা আমাদের আগে থেকেই জানা। আমি যখন বিগত সময় নির্বাচন করি আমার সঙ্গেও এমন হয়েছিল। এর বেশি কিছু এখন আর বলার নেই।’

প্রধান নির্বাচন কমিশনার ইলিয়াস কাঞ্চন বলেন, ‘জয় পরাজয় পরের বিষয়, শিল্পী সমিতির ইতিহাসে এই প্রথম কোনো অভিনেত্রী সভাপতি পদে অংশ নিলেন, এটাই অনেক বড় ব্যাপার।’

ফল ঘোষণার পর তাৎক্ষণিক প্রতিক্রিয়ায় মিশা বলেন, ‘শিল্পী সমিতির ইতিহাসে এই প্রথম এ টু জেড একটি পূর্ণাঙ্গ প্যানেলের সবাই পাশ করলেন। এজন্য সমস্ত শিল্পীদের প্রতি কৃতজ্ঞতা।’

শিল্পী সমিতি নির্বাচনে সভাপতি পদে মিশা সওদাগর ২২৭ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী চিত্রনায়িকা মৌসুমী পেয়েছেন ১২৫ ভোট। সাধারণ সম্পাদক পদে জায়েদ খান ২৮৪ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী ইলিয়াস কোবরা পেয়েছেন ৬৮ ভোট। সহ-সভাপতি পদে নির্বাচিত হয়েছেন মনোয়ার হোসেন ডিপজল ও চিত্রনায়ক রুবেল। তাদের প্রাপ্ত ভোট যথাক্রমে ৩১১ ও ২৯৩।

সহ-সম্পাদক পদে ২৮১ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন আরমান। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী সাংকোপাঞ্জা পেয়েছেন ৭১ ভোট। আন্তর্জাতিক সম্পাদক পদে ২৪৭ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন চিত্রনায়ক ইমন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী খালেদ পেয়েছেন ১০৫ ভোট। সংস্কৃতি ও ক্রীড়া সম্পাদক পদে জাকির হোসেন ২৩০ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী ডন পেয়েছেন ১২২ ভোট।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *