দিবারাত্রির টেস্টে টস জিতে ব্যাটিংয়ে বাংলাদেশ

রূপসী বাংলা স্পোর্টস ডেস্ক: গোলাপি বলের চ্যালেঞ্জে নাম লেখাতে যাচ্ছে বাংলাদেশ। ইডেন গার্ডেনসে বাংলাদেশ সময় দুপুর দেড়টায় শুরু হতে যাচ্ছে সিরিজের দ্বিতীয় টেস্ট। দুই ম্যাচ সিরিজের দ্বিতীয় ও শেষ টেস্টে টস জিতে ব্যাটিংয়ের সিদ্ধান্ত নিয়েছেন বাংলাদেশের দলপতি মুমিনুল হক।

বাংলাদেশের টেস্ট অভিষেকটা হয়েছিল ঘরের মাঠে ভারতের বিপক্ষে। এবার আরেকটি অভিষেক হতে যাচ্ছে বাংলাদেশের। প্রথমবারের মতো দিবারাত্রির টেস্টে, গোলাপি বলে। এবারও প্রতিপক্ষ ভারত। তবে, ভেন্যু এবার কলকাতার ইডেন গার্ডেনস। ভারতও প্রথমবারের মতো দিবারাত্রির টেস্টে নামতে যাচ্ছে।

প্রথম টেস্টে শোচনীয় পরাজয়ের পর ঘুরে দাঁড়াতে মরিয়া বাংলাদেশ। তবে গোলাপি বলের চ্যালেঞ্জটা বেশি। প্রথম টেস্টে ব্যাটসম্যানরা পুরোপুরি ব্যর্থ। দ্বিতীয় টেস্টে তাই ব্যাটসম্যানদের ওপরই চাপ থাকবে বেশি। গোলাপি বলে টেস্ট খেলার আগে যেভাবে নিজেদের প্রস্তুত করার দরকার সেই সময়টা পায়নি বাংলাদেশ। তবু গোলাপি বলের চ্যালেঞ্জে নেমে যাচ্ছে বাংলাদেশ।

এর আগে দিবারাত্রির টেস্ট দেখতে শুক্রবার (২২ নভেম্বর) সকাল ১০টা ২৩ মিনিটে প্রধানমন্ত্রী ও তার সফরসঙ্গীদের বহনকারী উড়োজাহাজ হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর ত্যাগ করেন। পরে বাংলাদেশ সময় সকাল ১১টার দিকে পৌঁছেছেন কলকাতায়। ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিসিআই) নতুন সভাপতি সৌরভ গাঙ্গুলী তাকে বিমানবন্দরে অভ্যর্থনা ও ফুলেল শুভেচ্ছা জানান।

বিমানবন্দর থেকে প্রধানমন্ত্রীকে নিয়ে যাওয়া হয় ইডেন গার্ডেনসে। সেখানে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে সঙ্গে নিয়ে ঘণ্টা বাজিয়ে ম্যাচের উদ্বোধন করেন শেখ হাসিনা। এরপরে খেলার প্রথম সেশন উপভোগ করে মধ্যাহ্নভোজে অংশ নেবেন তিনি। তারপর মমতা ব্যানার্জির সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাতেও মিলিত হবেন শেখ হাসিনা।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে স্বাগত জানাতে নেতাজী সুভাষ চন্দ্র বসু বিমানবন্দরে বিসিসিআই সভাপতি সৌরভ গাঙ্গুলী ও বিসিবি প্রেসিডেন্ট নাজমুল হাসান পাপন

বাংলাদেশ এবং ভারতের মধ্যকার চলমান সিরিজের প্রথম টেস্ট জিতে ১-০ তে এগিয়ে আছে স্বাগতিক ভারত। এই সিরিজ দিয়ে বাংলাদেশের বিশ্ব টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপে অভিষেক ঘটেছে। আর সিরিজের শেষ ম্যাচে দিবারাত্রির টেস্টে অভিষেক ঘটছে দুই দেশেরই।

বাংলাদেশ একাদশ:

ইমরুল কায়েস, সাদমান ইসলাম, মোহাম্মদ মিঠুন, মুমিনুল হক (অধিনায়ক), মুশফিকুর রহিম, মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ, লিটন দাস (উইকেটরক্ষক), আবু জায়েদ রাহী, এবাদত হোসেন, আল-আমিন এবং নাইম হাসান।

ভারত স্কোয়াড:

মায়াঙ্ক আগারওয়াল, রোহিত শর্মা, চেতেশ্বর পূজারা, বিরাট কোহলি (অধিনায়ক), আজিঙ্কা রাহানে, রবীন্দ্র জাদেজা, ঋদ্ধিমান সাহা (উইকেটরক্ষক), রবীচন্দ্রন আশ্বিন, উমেষ যাদব, মোহাম্মদ শামী, ইশান্ত শর্মা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *