বিনোদন

নারীর পোশাক নিয়ে বিতর্কিত মন্তব্য, ক্ষমা চেয়েছেন অনন্ত জলিল

ধর্ষণের জন্য নারীর পোশাকই দায়ী বলে মন্তব্য করে সমালোচনার মুখে পড়েছেন নায়ক ও প্রযোজক অনন্ত জলিল। ফেসবুকে শেয়ার করা এক ভিডিওতে অনন্ত জলিল বলেন, শালীন পোশাক পরা নারী কখনওই ধর্ষণের শিকার হয় না। পোশাক ভালো না হলে তার শরীর-ফিগার দেখে বাজে স্বভাবের লোকজন ধর্ষণের উস্কানি পায়।

ভিডিওটিতে অনন্ত জলিলের এমন মন্তব্য নিয়ে বিভিন্ন মহলে আলোচনা-সমালোচনা হতে থাকে।

নিজের এমন মন্তব্য জন্য সবার কাছে ক্ষমা চেয়েছেন অনন্ত।

তিনি বলেন, ‘গতকালের ভিডিওতে আমি মূলত মেয়েদেরকে শালীনতা বজায় রাখার কথা বলতে চেয়েছি। অনেকেই বিষয়টিকে পজিটিভভাবে নিয়েছেন, আবার অনেকেই নেগেটিভভাবে নিয়েছেন। তবে, মন্তব্য নিয়ে আমি কোনও বিতর্কে জড়াতে চাই না। কেউ ভুল বুঝে থাকলে ক্ষমার দৃষ্টিতে দেখবেন।’

সমালোচনার জের ধরেই ভিডিওটি সরিয়ে নেন অনন্ত জলিল। পরে মন্তব্যের বিতর্কিত অংশটুকু সম্পাদনা করে পোস্ট করে তার ক্যাপশনে লেখেন, ‘আমি কোনও বিতর্কে জড়াতে চাই না, তাই আমি উক্ত বিষয়টি কারেকশন করে দিলাম। কেউ ভুল বুঝে থাকলে ক্ষমার দৃষ্টিতে দেখবেন।’

অনন্ত আরও লেখেন, ‘সাম্প্রতিক সময়ে দেশে ধর্ষণ, বিশেষ করে শিশু ধর্ষণ ও ধর্ষণ-পরবর্তী হত্যার মতো ঘৃণ্য অপরাধ বেড়েই চলেছে। এই অপরাধের সঙ্গে জড়িত অপরাধীর দ্রুততম সময়ে বিচার ও দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি নিশ্চিত করার বিকল্প কিছু নেই। পরিবারের দায়িত্ব নারীর প্রতি বৈষম্যমূলক দৃষ্টিভঙ্গির পরিবর্তন করা। নারী-পুরুষ উভয়েই পরিবার ও সমাজের জন্য অনিবার্য। পরিবার টিকিয়ে রাখার জন্য যেমন নারী-পুরুষের সম্মিলিত উদ্যোগ, পরিকল্পনা, ত্যাগ ও সংযমের প্রয়োজন। একজনকে উপেক্ষা করে বা বাদ দিয়ে কেবল পুরুষ কিংবা নারীর পক্ষে বেশিদূর এগোনো সম্ভব নয়। তাই, আমরা চাই নারী-পুরুষের সৌহার্দ্যপূর্ণ সমঝোতামূলক সম্পর্ক, শ্রদ্ধা ও ভালোবাসার সম্পর্ক।’❐

Show More

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button

Adblock Detected

Please, Deactivate The Adblock Extension