প্রধান খবরবাংলাদেশ

‘নিয়মের বাইরে গাড়ির আকার বাড়ালে ব্যবস্থা’

রূপসী বাংলা নিউজ ডেস্ক: নিয়মের বাহিরে কোনো পরিবহনের আকার বাড়ালে তাদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে বলে জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তিনি বলেন, ‘রাস্তায় পরিবহন চলাচলের জন্য কতটুকু জায়গা লাগবে তা সায়েন্টিফিকভাবে তৈরি করা হয়। কিন্তু অনেকেই সিট বাড়ানোর জন্য পরিবহনের আকার বাড়ায়। এটা বন্ধ করতে হবে।’

এছাড়া নিয়ম না মেনে গাড়ি চালালে তাদের বিরুদ্ধেও যথাযথ ব্যবস্থা নেয়া হবে বলে জানান তিনি।

মঙ্গলবার রাজধানীর কৃষিবিদি ইনস্টিটিউট মিলনায়তনে জাতীয় নিরাপদ সড়ক দিবসের আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন প্রধানমন্ত্রী।

শেখ হাসিনা বলেন, ‘রাস্তা বিবেচনা করে সবাইকে গাড়ি চালাতে হবে। নকশা পরিবর্তন করে গাড়ি বড় করা যাবে না। আরেকটি গাড়ি যাওয়ার সাইট বিবেচনা করতে হবে। এটা করলে কঠোর ব্যবস্থা নেয়া হবে।’

রাস্তা পারাপারে সবাইকে সচেতন হওয়ার আহ্বান জানিয়ে বঙ্গবন্ধুকন্যা বলেন, ‘রাস্তা পারাপারে অধৈর্য হওয়া যাবে না। সবাইকে ট্রাফিক আইন মেনে চলতে হবে। এ ক্ষেত্রে পথচারীদের যেমন দায়িত্ব আছে, তেমনি গাড়িচালকদেরও দায়িত্ব আছে।’

‘অনেকেই আছেন যারা গাড়িতে বসে হাত-পা, কুনই বাইরে ঝুলিয়ে রাখেন। এটা আসলে যাত্রীর কাজ না। এতে যে কোনো গাড়ির সঙ্গে লেগে দুর্ঘটনা ঘটতে পারে। এ ক্ষেত্রে সচেতন হতে হবে।’

‘নিরাপদ সড়ক বাস্তবায়ন সরকারের একার না সর্বস্তরের মানুষের’ এমন মন্তব্য করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘দুর্ঘটনার জন্য শুধু চালক নয়, পথচারীদেরও দায় আছে। এজন্য সড়কে চলাফেরার সময় সবাইকে সচেতন থাকতে হবে। দুর্ঘটনা ঘটলে দেখতে হবে সেখানে কার দোষ। পথচারীদের যেমন দায়িত্ব আছে, তেমনি চালকদেরও দায়িত্ব আছে।’

প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘গাড়ি চালাতে চালাতে মোবাইল ব্যবহার করছে। রেলপথ অতিক্রম করার সময় পথচারীরা মোবাইলে কথা বলছে। ফোনে কথা বলার সময় এত মশগুল যে ট্রেন আসছে সে শব্দও শুনতে পায় না। অনেকে দুই রেললাইনের মাঝখান দিয়ে হাঁটেন। কিন্তু যেকোনো সময় ট্রেনের ইঞ্জিন বিকল হয়ে যেতে পারে, গাড়ি থেমে যেতে পারে, এতে বড় দুর্ঘটনা ঘটার আশঙ্কা থাকে।’

চালকদের অসুস্থ প্রতিযোগিতা না করার আহ্বান জানিয়ে সরকার প্রধান বলেন, ‘পেছনে কোনো গাড়ি আছে কি-না, রাস্তার সাইট কতটুকু আছে, ভুল পথে গাড়ি চলছে কি-না এমন বিষয় মাথায় রেখে চালকদের গাড়ি চালাতে হবে। এছাড়া চালকদের অসুস্থ প্রতিযোগিতা বন্ধ করতে হবে। নয়তো কঠোর ব্যবস্থা নেয়া হবে আরও।’

সারাদেশে সড়কের উন্নয়ন হচ্ছে জানিয়ে বঙ্গবন্ধুকন্যা বলেন, ‘আমরা সড়ক উন্নয়ন করছি। দুর্ঘটনা কমে এসেছে। সচেতন হলে একেবারেই কমে আসবে। তিনি বলেন, ‘চারলেনের রাস্তা করার ব্যবস্থা করছি সারাদেশে। ইতোমধ্যে অনেক সড়ক চারলেন হয়ে গেছে। যাতে দুর্ঘটনা কমে সেভাবে কাজ করছি।’

Show More

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button
Close
Close

Adblock Detected

Please, Deactivate The Adblock Extension