প্রয়াত নবনীতা দেবসেন, সাহিত্য জগতে শোকের ছায়া

রূপসী বাংলা কলকাতা ডেস্ক: সাহিত্য জগতে আরও এক নক্ষত্র পতন। সুচিত্রা ভট্টাচার্য, নীরেন্দ্রনাথ চক্রবর্তীর পর চলে গেলেন নবনীতা দেবসেন। বাংলার সাহিত্য জগতে ফের এক অপূরণীয় ক্ষতি।

বৃহস্পতিবার সন্ধে ৭টা ৩৫ মিনিটে কলকাতার বাড়িতেই শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন তিনি। মৃত্যুকালে তাঁর বয়স হয়েছিল ৮১। বেশ কিছুদিন ধরেই তিনি বার্ধক্যজনিত রোগে ভুগছিলেন। তাঁর মৃত্যুতে সাহিত্য জগতে শোকের ছায়া।

যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের তুলনামূলক সাহিত্য বিভাগে দীর্ঘদিন অধ্যাপনা করেছেন তিনি। পাশাপাশি সাহিত্য জগতে তাঁর অবদান অসামান্য। কবিতা, উপন্যাস, ছোট গল্প, সাহিত্য সমালোচনা, ভ্রমণকাহিনী কিংবা অনুবাদ- সবকিছুতেই অবদান রেখেছেন তিনি।

সামাজিক, রাজনৈতিক- সমস্ত বিষয়েই লিখেছেন তিনি। প্রেসিডেন্সি কলেজের পর যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয় থেকে স্নাতকোত্তর পাশ করেন তিনি। পরে হার্ভার্ড বিশ্ববিদ্যালয় থেকে পড়াশোনা করার পর যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ে অধ্যাপনা করেন।

বাংলা ভাষা তাঁর প্রকাশিত বইয়ের সংখ্যা ৮০। একমনি শিশু সাহিত্যেও তাঁর বিশেষ অবদান রয়েছে। তাঁর প্রথম কবিতার বইয়ের নাম ‘প্রথম প্রত্যয়’। সাহিত্য অ্যাকাডেমি পুরস্কার পেয়েছেন তিনি, পদ্মশ্রী পুরস্কারেও ভূষিত হন তিনি।

নোবেলজয়ী অর্থনীতিবিদ অমর্ত্য সেনের প্রথম স্ত্রী নবনীতা দেবসেন। তাঁদের দুই কন্যাসন্তান নন্দিতা ও নন্দনা। এদিন তাঁর মৃত্যুতে শোকপ্রকাশ করেছেন অমর্ত্য সেন। তিনি বলেন, ‘তাঁর অভাব অনুভূত হবে।’

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *