বাংলাদেশকে হারিয়ে ঐতিহাসিক টেস্ট জয় আফগানিস্তানের

রূপসী বাংলা স্পোর্টস ডেস্ক: পাঁচদিনের ক্রিকেটে কনিষ্ঠ অধিনায়ক হিসেবে রশিদ খানের অভিষেক ম্যাচ। অভিজ্ঞ অল-রাউন্ডার মহম্মদ নবির বিদায়ী টেস্ট। সবমিলিয়ে চট্টগ্রামে বাংলাদেশের বিরুদ্ধে একমাত্র টেস্টকে স্মরণীয় রাখতে বদ্ধপরিকর ছিল আফগানরা। টস জিতে জহুর আহমেদ চৌধুরি স্টেডিয়ামে প্রথম দিন থেকেই ম্যাচের রাশ নিজেদের হাতে রেখেছিল তারা। চতুর্থ দিন শেষে আফগানিস্তান ও জয়ের মাঝে ঢাল হয়ে দাঁড়িয়েছিলেন একমাত্র শাকিব আল হাসান।

কিন্তু শাকিব নন, পঞ্চমদিন সকালে আফগানদের কাছে ‘ভিলেন’ হয়ে দেখা দিয়েছিল বৃষ্টি। মনে করা হচ্ছিল প্রকৃতির কাছেই হয়তো শেষমেষ আত্মসমর্পণ করতে হবে আফগানদের। কিন্তু বৃষ্টিতে একাধিকবার খেলা ব্যাহত হলেও প্রয়োজনীয় স্বল্প সুযোগেই বাজিমাত করে গেল তৃতীয় টেস্ট খেলতে নামা আফগানিস্তান। বাংলাদেশকে ২২৪ রানের বিরাট ব্যবধানে হারিয়ে ঐতিহাসিক টেস্ট জিতে নিল কাবুলিওয়ালার দেশ।

প্রথম সেশন বৃষ্টিতে ধুঁয়ে যাওয়ার পর দ্বিতীয় সেশনে এদিন শুরু হয় খেলা। ৬ উইকেটে ১৩৬ রান হাতে নিয়ে পঞ্চমদিন ক্রিজে নামেন বাংলাদেশের দুই অপরাজিত ব্যাটসম্যান। শাকিব অপরাজিত ছিলেন ৩৯ রানে। সৌম্য সরকার শূন্য রানে ছিলেন ক্রিজে। তবে আফগান ক্রিকেটারদের নিরাশ করে মাত্র দু’ওভার বল গড়ানোর পর ফের বৃষ্টিতে বন্ধ হয়ে যায় খেলা।

এরপর বৃষ্টি থামলে তৃতীয় সেশনের প্রথম বলেই জাকির খানের শিকার হন শাকিব। পথের কাঁটা দূর হতেই ফের বিধ্বংসী হয়ে ওঠেন রশিদ। বাংলাদেশ ইনিংসের ৫৬ ও ৫৮ তম ওভারে মেহদি হাসান ও তাইজুল ইসলামকে ফিরিয়ে আফগানিস্তানকে স্মরনীয় জয়ের দোরগোড়ায় দাঁড় করিয়ে দেন নয়া অধিনায়ক। তবে সময়ের সঙ্গে সঙ্গে দিনের নির্ধারিত ওভার কমে আসতে থাকায় শেষদিকে উত্তেজক হয়ে ওঠে ম্যাচ। নইম হাসানকে সঙ্গে নিয়ে একদিকে যখন ম্যাচ বাঁচানোর লড়াই লড়ছেন সৌম্য। তখন উলটোদিকে বাংলাদেশের অন্তিম উইকেটের অপেক্ষায় প্রহর গুনছিল আফগানিস্তান।

কিন্তু শেষ অবধি শেষরক্ষা হয়নি বাংলাদেশের। অন্তিমদিনের খেলা যখন ৩.২ ওভার বাকি, ঠিক তখনই ফের রশিদের বলে ঠকে যান সৌম্য। বল সৌম্যর ব্যাট-প্যাড হয়ে শর্ট লেগে দাঁড়ানো ইব্রাহিম জাদরানের হাতে ধরা পড়তেই সেলিব্রেশনে মেতে ওঠেন আফগান ক্রিকেটাররা। প্রথম ইনিংসে ৫ উইকেট ও ব্যাট হাতে ৫০ রানের ইনিংস খেলার পর দ্বিতীয় ইনিংসেও ৬ উইকেট নিয়ে ম্যাচ সেরা রশিদ খান। এছাড়াও বাংলাদেশের বিরুদ্ধে একমাত্র টেস্টে আফগানিস্তানের প্রাপ্তি প্রথম ইনিংসে প্রথম আফগান ব্যাটসম্যান হিসেবে রহমত শাহের শতরান।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *