প্রবাস

বাংলাদেশের অগ্রগতির প্রশংসায় ইউএস সেনেটর মেনেন্দেজ

যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্র বিষয়ক সেনেট কমিটির চেয়ারম্যান বব মেনেন্দেজ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশের অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি এবং সামাজিক অগ্রগতির প্রশংসা করেছেন বলে জানিয়েছে ওয়াশিংটনে বাংলাদেশ দূতাবাস।

দূতাবাসের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, বৃহস্পতিবার ওয়াশিংটন ডিসির ক্যাপিটল হিলে প্রধানমন্ত্রীর বেসরকারি শিল্প ও বিনিয়োগ উপদেষ্টা সালমান এফ রহমানের সঙ্গে এক বৈঠকে সেনেটর বব মেনেন্দেজ এ বিষয়ে কথা বলেন।

বাংলাদেশ-যুক্তরাষ্ট্র সম্পর্কের বিভিন্ন দিক নিয়েও তারা আলোচনা করেন জানিয়ে সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, “উপদেষ্টা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার গতিশীল ও দূরদর্শী নেতৃত্বে গত ১২ বছরে বাংলাদেশে যে ব্যাপক আর্থ-সামাজিক অগ্রগতি সাধিত হয়েছে তা সেনেটরকে অবহিত করেন। তিনি বাংলাদেশ-মার্কিন সম্পর্ক আরও জোরদার করতে সেনেটরের সমর্থন কামনা করেন।

“সেনেটর মেনেন্দেজ বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশের অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি এবং সামাজিক অগ্রগতির প্রশংসা করেন। তিনি অর্থনৈতিক অগ্রগতির পাশাপাশি শ্রম অধিকার ও শ্রমিকদের সুরক্ষা নিশ্চিত করার উপর গুরুত্ব আরোপ করেন।”

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশে শ্রমিকের অধিকার এবং সুরক্ষা নিশ্চিত করতে বাংলাদেশ সরকারের নেওয়া বিভিন্ন উদ্যোগ সম্পর্কেও উপদেষ্টা সেনেটরকে অবহিত করেন।

নারায়ণগঞ্জের হাসেম ফুডস কারখানায় সাম্প্রতিক অগ্নিকাণ্ডের পর এ বিষয়ে একটি উচ্চ পর্যায়ের কমিটি গঠনের কথাও সেনেটরকে বলেন সালমান এফ রহমান। তিনি নিজেই ওই কমিটির নেতৃত্ব দিচ্ছেন।

অর্থ বিভাগের সিনিয়র সচিব আবদুর রউফ তালুকদার এবং যুক্তরাষ্ট্রে বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত এম সহিদুল ইসলামও বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন।

বাংলাদেশে বিনিয়োগ আকর্ষণে যুক্তরাষ্ট্রের চারটি শহরে সপ্তাহব্যাপী রোড শো আয়োজনের অংশ হিসেবে এই সফরে একটি উচ্চ-পর্যায়ের প্রতিনিধি দলের নেতৃত্ব দিচ্ছেন প্রধানমন্ত্রীর উপদেষ্টা সালমান এফ রহমান।
বুধবার তিনি ওয়াশিংটন ডিসিতে বিশ্ব ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক (অপারেশন) এক্সেল ভ্যান ট্রটসেনবার্গসহ জ্যেষ্ঠ কর্মকর্তাদের সঙ্গেও বৈঠক করেন।

বাংলাদেশ বিনিয়োগ উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের নির্বাহী চেয়ারম্যান সিরাজুল ইসলাম, বাণিজ্য সচিব, অর্থনৈতিক সম্পর্ক বিভাগের সচিব এবং বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড একচেঞ্জ কমিশনের চেয়ারম্যানও ওই বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন।

বিশ্ব ব্যাংকের কর্মকর্তাদের মধ্যে আইএফসির দক্ষিণ এশিয়া বিষয়ক ভাইস প্রেসিডেন্ট জন গ্যানডালফো, বিশ্ব ব্যাংকের দক্ষিণ এশিয়া বিষয়ক ভারপ্রাপ্ত ভাইস প্রেসিডেন্ট ইলাংগো পাচুমাথো, পরিচালক জুবিদা আলাওয়া, বাংলাদেশে আইএফসির কান্ট্রি ডিরেক্টর ওয়েন্ডি ওয়ার্নার এবং বিশ্ব ব্যাংকে বাংলাদেশের বিকল্প নির্বাহী পরিচালক মোহাম্মদ শফিউল আলম উপস্থিত ছিলেন ওই বৈঠকে।

বাংলাদেশ দূতাবাসের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, উপদেষ্টা সালমান এফ রহমান বাংলাদেশের উন্নয়নে ধারাবাহিক সহযোগিতা দিয়ে যাওয়ায় বিশ্ব ব্যাংককে ধন্যাবদ জানান এবং জরুরি ভিত্তিতে কোভিড টিকা কিনতে বিশ্ব ব্যাংকের ঋণ দ্রুত ছাড় করার বিষয়ে গুরত্ব আরোপ করেন।

“ট্রটসেনবার্গ এ বিষয়ে একমত পোষণ করে বাংলাদেশের বিস্ময়কর উন্নয়নের ভূয়সী প্রশংসা করেন। একইসাথে বাংলাদেশের অর্থনৈতিক অগ্রযাত্রায় বিশ্ব ব্যাংকের সহযোগিতা অব্যাহত থাকবে মর্মেও আশ্বাস প্রদান করেন।”

বাংলাদেশ প্রতিনিধিদলের সদস্যরা আইএফসির দক্ষিণ এশিয়া বিষয়ক ভাইস প্রেসিডেন্ট এবং বিশ্ব ব্যাংকের দক্ষিণ এশিয়া বিষয়ক ভারপ্রাপ্ত ভাইস প্রেসিডেন্টের সঙ্গে আলাদাভাবেও বৈঠক করেন বলে সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়।

Show More

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button

Adblock Detected

Please, Deactivate The Adblock Extension