বিএসএফ সদস্য নিহতের ঘটনা দুঃখজনক: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

রূপসী বাংলা নিউজ ডেস্ক: ভারত বাংলাদেশ সীমান্তে বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ বা বিজিবি’র চালানো গুলিতে এক ভারতীয় সীমান্ত রক্ষী নিহত হয়েছে। নিহতের নাম বিজয়ভান সিংহ। তিনি বিএসএফ-এর হেড কনস্টেবল।

সিমান্তে বিএসএফ নিহত হওয়ার ঘটনা প্রসঙ্গে কথা বলেছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল। তিনি বলেন, এটা অনাকাঙ্খিত ঘটনা। বিএসএফ সদস্য নিহতের ঘটনা দুঃখজনক।

বিএসএফ সূত্রে জানা গিয়েছে, মুর্শিদাবাদের জলঙ্গিতে জলসীমান্ত পেরিয়ে বাংলাদেশে ঢুকে গিয়েছিলেন তিন জন ভারতীয় মৎস্যজীবী। তাদের উদ্ধার করতে গিয়েছিল বিএসএফ।

বিএসএফের দাবি, বৃহস্পতিবার দুই মৎস্যজীবীকে উদ্ধার করে ফেরার পথে আচমকাই বিজিবি গুলি চালায়। ওই ঘটনায় মৃত্যু হয়েছে বিএসএফ-এর হেড কনস্টেবল বিজয়ভান সিংহের। তার মাথায় গুলি লাগে। অন্য এক কনস্টেবল বিজিবি-র ছোড়া গুলিতে আহত হয়েছেন। তাকে মুর্শিদাবাদ মেডিকেল কলেজে ভর্তি করা হয়েছে। ভারতীয় গণমাধ্যম আনন্দবাজার এমন খবর প্রকাশ করেছে।

আনন্দবাজারের ওই প্রতিবেদনে আরো বলা হয়, এ দিন সকালে জলঙ্গির তিন মৎস্যজীবী পদ্মায় মাছ ধরার সময় আন্তর্জাতিক জলসীমান্ত পেরিয়ে বাংলাদেশের দিকে চলে যান। তখনই তিন জনকে বিজিবি আটক করে। বিষয়টি বিএসএফ-কে জানানো হয়। দু’পক্ষের মধ্যে ফ্ল্যাগ মিটিংয়ের পর তিন জন মৎসজীবীর মধ্যে দু’জনকে ছেড়ে দেয় বিজিবি। কিন্তু, একজনকে তারা ছাড়তে নারাজ ছিল। এমন পরিস্থিতিতে দু’জনকে নিয়ে কাটমারি চর বর্ডার পোস্টের দিকে ফিরছিল বিএসএফের পাঁচ জনের একটি দল। আচমকা পিছন দিক থেকে গুলি ছুটে আসে। বিজয়ভানের মাথায় গুলি লাগে।

ঘটনার পর দু’তরফে ডিজি পদমর্যাদার অফিসারদের উপস্থিতিতে বৈঠক হয়। বিজিবি-র তরফে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে আশ্বাস মিলেছে বলে জানিয়েছে বিএসএফ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *