বিদ্যা বালান আবারও বাংলা ছবি নিয়ে আসছেন

বিদ্যা বালান জন্মসূত্রে দক্ষিণী হলেও মনে প্রাণে তিনি ভীষণভাবে বাঙালি। জীবনের প্রথম ছবিটাও করেছিলেন বাংলাতেই। পরিচালক গৌতম হালদারের ‘ভালো থেকো’ ছবি দিয়ে তাঁর সেলুলয়েডের যাত্রা শুরু। বাংলা ভাষার প্রতি, বাঙালিদের প্রতি তার টানের কথা বারবার উঠে এসেছে বিদ্যার বিভিন্ন সাক্ষাৎকারে। জানেন রবীন্দ্রনাথের কবিতা, গান। বলিউডে যখন বিদ্যার প্রথম ছবিটিও ছিল একজন বাঙালি পরিচালকের। প্রদীপ সরকারের ‘পরিণীতা।’ সে ছবি বিদ্যাকে বলিউডে এনে দেয় নতুন পরিচিতি। এরপর আর পেছন ফিরে তাকাতে হয় নি বিদ্যাকে।
নতুন খবর হলো, আবারও বাংলা ছবি করতে চলেছেন বিদ্যা বালান। সূত্রের খবর, এবারে যে বাংলা ছবিটা তিনি করবেন বলে শোনা যাচ্ছে তার পরিচালক শৈবাল বন্দ্যোপাধ্যায় ও লীনা গঙ্গোপাধ্যায়। ইতোমধ্যেই দুটি ভালো অন্য ধারার ছবি করে ফেলেছেন এই পরিচালক জুটি। সম্প্রতি মুক্তি পেয়েছে দেব ও পাওলি অভিনীত সাঁঝবাতি। এবার তারা হাত দেবেন তৃতীয় কাজে।
ছবির গল্প হিসেবে শৈবাল বান্ধোপাধ্যায় এবং লীনা গঙ্গোপাধ্যায় বেছে নিয়েছেন একেবারে প্রাসঙ্গিক একটি বিষয়। বহু মহিলারা বা মেয়েরা বিয়ে করে থাকেন বিদেশে কর্মরত পাত্রকে। পেয়ে যান এনআরআই স্ট্যাটাস। কারও আগে থেকে পরিচয় থাকে। আবার অনেকে আছেন যারা বাবা মায়ের পছন্দ করা পাত্রকেই জীবনসঙ্গী হিসেবে বেছে নেন। বিয়ে করে বিদেশে তারা পারি দেন। কিন্তু বিদেশে যাওয়ার পর অনেক ক্ষেত্রেই দেখা যায় লাঞ্ছিত নিপীড়িত ও অত্যাচারিত হতে হচ্ছে সেসব পাত্রীদের। অনেক আশা নিয়ে নতুন সংসারের স্বপ্ন নিয়ে সাত সমুদ্র তেরো নদী পারি দেন এই সব নববধূরা৷ কিন্তু কোথাও যেন তাদের হ্যাপি ফ্যামিলি আ্যলবামের পেছনে থেকে যায় না বলা এক অজানা বাস্তব। এবার এই সব মহিলাদের জীবন কাহিনী সেলুলয়েডে তুলে ধরবেন বিদ্যা বালান আর লীনা ও শৈবাল৷
ছবির বিষয় হিসেবে যা রয়েছে তাতে বিদ্যার থেকে উৎকৃষ্ট অভিনয় শিল্পী নেই দু পরিচালকের হাতে সেটা তো বোঝাই যাচ্ছে। এবং বিদ্যা যে অসামান্য অভিনয়ে এই চরিত্র ফুটিয়ে তুলবেন তাও আর বলার অপেক্ষা রাখে না। সব ঠিক থাকলে এই বছরের মাঝামাঝি বা শেষের দিকেই শুরু হবে এই ছবির শুটিং। কোলকাতা ছাড়াও ভারতের বাইরের দেশেও অনেকটা শুট করা হবে এই ছবি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *