ভারত

ভারতের অযোধ্যায় রূপার ইটে রাম মন্দির নির্মাণ শুরু

আজ থেকে ভারতের অযোধ্যায় বাবরি মসজিদের জায়গায় শুরু হচ্ছে রাম মন্দির নির্মাণ।

ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন ও ভূমিপূজা করবেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি।

উত্তর প্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথসহ আরও অনেকে এ অনুষ্ঠানে যোগ দেন। এ কারণে নিরাপত্তা ব্যবস্থা জোরদার করা হয়।

গেল নভেম্বরে সুপ্রিম কোর্টের এক রায়ে বাবরি মসজিদ-রাম মন্দির নিয়ে দীর্ঘ বিরোধের নিষ্পত্তি হয়। এতে, বাবরি মসজিদের স্থানে মন্দির নির্মাণের অনুমতি দিয়ে মসজিদের জন্য ভূমি বরাদ্দ দেয়ার নির্দেশ দেন সুপ্রিম কোর্টের পাঁচ সদস্যের বেঞ্চ।

নানা সমালোচনার মুখেই বিতর্কিত অযোধ্যায় রাম মন্দির নির্মাণ করতে ৪০ কেজি রূপার ইট ব্যবহার করে ৫ আগস্ট মন্দিরের ভিত্তি স্থাপনের কথা জানিয়েছিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যম এনডিটিভি জানিয়েছে, মূল অনুষ্ঠানের তিনদিন আগে থেকেই অযোধ্যায় ধর্মীয় আচার অনুষ্ঠান শুরু হয়।

উত্তর প্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথও ভূমি পূজায় উপস্থিত ছিলেন। এছাড়া ছিলেন বিজেপি’র মতাদর্শিক সংগঠন রাষ্ট্রীয় স্বয়ংসেবক সংঘের প্রধান মোহন ভগবত ছাড়াও অন্য জ্যৈষ্ঠ নেতারা।

বাবরি মসজিদ-রাম মন্দির নিয়ে হিন্দু-মুসলমানের শতাব্দী প্রাচীন বিরোধের আইনি নিষ্পত্তি হয় গত বছরের নভেম্বরে।

ভারতের সুপ্রিম কোর্টের পাঁচ সদস্যের বেঞ্চের রায়ে অযোধ্যার বিতর্কিত স্থানে রাম মন্দির নির্মাণ ও বিকল্প স্থানে মুসলমানদের মসজিদ নির্মাণের জমি দেওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়। মন্দির নির্মাণে একটি ট্রাস্ট গঠনের নির্দেশনাও দেওয়া হয় ওই রায়ে।

‘৯০ দশকের শুরু দিকে বেশ কিছু উগ্র হিন্দুদের হামলায় ভেঙে ফেলা হয় বাবরি মসজিদ। এ নিয়ে ব্যাপক সমালোচনার জন্ম হয়।

এদিকে করোনা মহামারী রোধে ঘোষিত বিধিনিষেধ দ্বিতীয় ধাপে তুলে নিয়ে ভারতে ধর্মীয় স্থানগুলো খুলে দেওয়ার পর গত ৮ জুন অযোধ্যায় অস্থায়ীভাবে নির্মিত মন্দিরটি দর্শণার্থীদের জন্য খুলে দেওয়া হয়। এর আগে মার্চ মাসে সেখানে রাম মূর্তি স্থাপন করেন উত্তর প্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ।

গত কয়েক দশক ধরে ওই মূর্তিটি একটি টিনের অবকাঠামোর ওপর রাখা ছিল।

বিশ্বব্যাপী মহামারী করোনা ভাইরাসের মধ্যেই গত (২০ জুন) অযোধ্যায় বহুল আলোচিত বাবরি মসজিদের জায়গায় রাম মন্দির নির্মাণ কাজ শুরু হওয়ার কথা ছিল। তবে হঠাৎ লাদাখে ভারত-চীন সীমান্ত যুদ্ধ উন্মাদনা তৈরি হওয়ায় রাম মন্দির নির্মাণের কাজ সাময়িক সময়ের জন্য স্থগিত রাখার ঘোষণা দেয় ট্রাস্ট।

প্রস্তাবিত মন্দিরটি হবে নির্মিত হবে মোট ১২৫ ফুটের। যদিও তা বাড়িয়ে ১৬০ ফুট করার প্রস্তাব আসে নানা মহল থেকে। মন্দিরের প্রথম তলা হবে ১৮ ফুটের। সেখানে থাকবে রাম লালার মূর্তি। দ্বিতীয় তলা হবে ১৫ ফুট ৯ ইঞ্চির। সেখানে গড়ে তোলা হবে রামের দরবার।❑

Show More

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button
Close
Close

Adblock Detected

Please, Deactivate The Adblock Extension