মাত্র ৯ বছরেই ইউনিভার্সিটির ডিগ্রি, অবাক নেটিজেনরা

রূপসী বাংলা আন্তর্জাতিক ডেস্ক: তাঁর বয়স মাত্র ৯। কিন্তু তাঁর কীর্তি শুনলে চোখ কপালে উঠতে বাধ্য। ইতিমধ্যেই নয় বছরের লরেন সিমন নামের এই বালক পেতে চলেছেন ইউনিভার্সিটির ডিগ্রি। বেলজিয়ান এই বালক মাত্র ৯ বছরে ঠিক কীভাবে ইউনিভার্সিটির ডিগ্রি পেতে চলেছে তা নিয়ে বিস্ময় প্রক্রিয়া প্রকাশ করেছেন নেটিজেন থেকে সাধারণ মানুষ।

জানা গিয়েছে ছোটবেলা থেকেই অত্যন্ত মেধাবী ছিল এই বালক। তাঁর তার আই কিউ লেভেল পরিমাপ করে চমকে উঠেছে সকলে। ৯ বছরের বালকের আইকিউ ১৪৫, যা আইনস্টাইন ও স্টিফেন হকিং-এর আই কিউর কাছাকাছি।

লরেনের স্মৃতি শক্তি খুবই প্রখর বলে জানা গিয়েছে। লরেনের বাবা আলেকজান্ডার সিমন একজন দাঁতের ডাক্তার। তিনি বলেন, তারা তার সন্তানের জন্যে অতিরিক্ত কিছু করেন নি। তিনি বলেন, কীভাবে তার সন্তান এতো দ্রুত পড়াশোনা করেছে সেবিষয়ে তাদের কাছে কোন ব্যাখ্যা নেই।

মাত্র ৬ বছর বয়সেই হাইস্কুলে ভর্তি হয় লরেন। সেখানে প্রায় ছয় বছরের লেখাপড়া সে মাত্র দেড় বছরেই শেষ করে ফেলে। যখন তাঁর বয়স ছিল ৮, তখন সে ভর্তি হয় ইউনিভার্সিটিতে। জানা গিয়েছে ডিসেম্বর মাসেই এই ইউনিভার্সিটির ডিগ্রি অর্জন করবে সে। এতো অল্প বয়সে কারোও বিশ্ববিদ্যালয়ের ডিগ্রি অর্জনের নজির আগে নেই।

এই মুহূর্তে লরেন রীতিমতো স্টার। সোশাল মিডিয়াতেও সময় কাটায় সে। গত শুক্রবার পর্যন্ত ইন্সটাগ্রামে তার ফলোয়ার সংখ্যা ছিল ১৩,০০০। লরেনের শিক্ষকরা জানিয়েছেন, সবকিছু লরেন খুব দ্রুত শিখতে পারে। এরকম শিক্ষার্থী তারা আগে কখনো পাননি। এজন্যে তারা তাকে ডাকেন ‘জিনিয়াস’ হিসেবে।

তবে নরেন কিন্তু অন্য জিনিয়াসদের মত না। দাবা খেলা বা কোনও গল্পের বই পড়ার চেয়ে সে ভিডিও গেম খেলতে বেশি ভালোবাসে বলে জানা গিয়েছে। পাশাপাশি ভবিষ্যতে কৃত্রিম অঙ্গ প্রত্যঙ্গ তৈরি করা তাঁর স্বপ্ন। আর সেই কারণে সে এবার পড়াশোনা করতে চায় মেডিসিন নিয়ে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *