আন্তর্জাতিকএশিয়া

‘মেরে ফেলে বলছে করোনায় মৃত্যু’

মায়ানমারে বিক্ষোভকারীকে গুলি করে মেরে জান্তা বাহিনী বলছে করোনায় মৃত্যু হয়েছে। বুধবার মান্দালয়ে মারা যাওয়া ওই বিক্ষোভকারীর স্বজনদের তার লাশ দেখতে দেওয়া হয় নি।

এ ছাড়া বিক্ষোভে সেনা-পুলিশের হামলায় আহত দুই বিক্ষোভকারীর সঙ্গে তাদের পরিবারের সদস্যদের দেখা করতে দেওয়া হচ্ছে না। মায়ানমার নাও।

বিক্ষোভের সময় নিরাপত্তা বাহিনীর হামলায় আহত দুজনকে শনিবার ভর্তি করা হয় মান্দালয়ের ৯১০ ব্যাটেলিয়ন কম্পাউন্ড হাসপাতালে। তাদের সঙ্গে আহত আরেকজন ইয়ার ঝার অং মারা গেলে তার স্ত্রী ফিউ ফিউ উইনকে বলা হয় তিনি করানোয় মারা গেছেন।

কিন্তু তিনি জানান, তাদের বিশ্বাস তাকে পিটিয়ে মারা হয়েছে। কারণ পায়ে গুলির আঘাত নিয়ে তাকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

কেবল মৃত প্রতিবাদীকে করোনায় মৃত্যু বলে চালানো হয় নি। একই সঙ্গে তার সঙ্গে আহত বাকিদেরও স্বজনদের সঙ্গে দেখা করতে দেওয়া হচ্ছে না করোনার অজুহাতে। বলা হচ্ছে, ওই দুই আহতকে কোয়ারেন্টিনে রাখা হয়েছে। কারণ তারা করোনায় মৃত ব্যক্তির সংস্পর্শে এসেছিলেন।

ইয়ার ঝার অং-এর মৃত্যুকে প্রথমে গোপন রাখা হয়েছিল। আহতদের একজনের স্ত্রী তার মৃত্যুর বিষয় পরিবারের সদস্যদের জানানোর কারণে তাকে নিজের রোগীদের দেখতে দেওয়া হচ্ছে না।

করোনায় মৃত্যুর দাবি ও আহতদের সঙ্গে পরিবারের সদস্যদের দেখা করতে না দেওয়ার বিষয়ে মুখ খুলছে না জান্তা ও হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ।

মূলত হতাহতদের পরিবারের সদস্যদের হয়রানি ও তাদের কাছে বিভিন্ন ধরনের উৎকোচ দাবি করা হচ্ছে। এছাড়া ভীতির পরিবেশ তৈরি করে মানুষ যাতে প্রতিবাদ-বিক্ষোভে যোগ না দেয় সেটিও নিশ্চিত করতে চায় জান্তা।❐

Show More

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button

Adblock Detected

Please, Deactivate The Adblock Extension