প্রধান খবরভারত

যুক্তরাষ্ট্রে বিভিন্ন দেশের ৭০০ গ্যাং সদস্য গ্রেফতার

মধ্য আমেরিকায় বিভিন্ন দেশের ৭০০ গ্যাং সদস্যকে গ্রেফতার করেছে যুক্তরাষ্ট্র।

এল সালভাদোর, গুয়াতেমালা এবং হন্ডুরাস সীমান্তে অপরাধমূলক কর্মকাণ্ডে জড়িত, বিশেষ করে এমএস-১৩ এবং ১৮তম স্ট্রিট গ্যাংয়ের এসব সদস্যকে শুক্রবার গ্রেফতার করা হয়। তাদের বিরুদ্ধে ফৌজদারি অভিযোগ এনেছে মার্কিন বিচার বিভাগ। খবর রয়টার্সের।

অভ্যন্তরীণ অপরাধের বিরুদ্ধে লড়াইয়ের অংশ হিসেবে যুক্তরাষ্ট্রসহ চারটি দেশের যৌথ অপারেশন- রিজিওনাল শিল্ডে (ওআরএস) এক সপ্তাহ ধরে অভিযান পরিচালনা করে গ্যাং সদস্যদের গ্রেফতার করা হয়।

এক বিবৃতিতে আমেরিকার অ্যাটর্নি জেনারেল উইলিয়াম বার বলেন, যুক্তরাষ্ট্রের বিচার বিভাগ এবং মধ্য আমেরিকার আইন প্রয়োগকারী সদস্যরা অভ্যন্তরীণ অপরাধে জড়িত গ্যাং সদস্য এবং সহযোগীদের শনাক্ত ও গ্রেফতার করেছে। তারা সব সময় অপরাধ বন্ধে সহযোগিতা করতে প্রতিশ্রুতিবদ্ধ।

বিবৃতিতে আরও বলা হয়, চলতি সপ্তাহে এল সালভাদোরের রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবীরা দেশে সংগঠিত অপরাধ গ্রুপের এক হাজার ১৫২ সদস্যের বিরুদ্ধে ফৌজদারি অভিযোগ দায়ের করেছে।

জাতীয় সিভিল পুলিশ সন্ত্রাসবাদ, হত্যা, চাঁদাবাজি, অপহরণ, অর্থ পাচার এবং মানব পাচারের অভিযোগে ৫৭২ জনকে আটক করেছে।

গুয়াতেমালা কর্তৃপক্ষ ৮০ জনের বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করেছে। ৪০ জনকে গ্রেফতারে করেছে এবং ইতোমধ্যে হেফাজতে থাকা ২৯ জনের বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা কার্যকর করেছে।

তারা সবাই ১৮তম স্ট্রিট গ্যাং এবং এমএস-১৩ এর সদস্য। গ্রেফতারকৃতদের বিরুদ্ধে গুয়াতেমালা কর্তৃপক্ষ মাদক, আগ্নেয়াস্ত্র জব্দ করে এবং চাঁদাবাজি, হত্যার ষড়যন্ত্রের জন্য অভিযোগ দায়ের করেছে।

হন্ডুরাসে যৌথ অভিযানে ৭৫ জনেরও বেশি এমএস-১৩ এবং ১৮তম স্ট্রিট গ্যাং সদস্য ও পাঁচ পুলিশ অফিসারকে গ্রেফতার করা হয়। এছাড়া ১০ জনেরও বেশি লোকের বিরুদ্ধে সার্চ ওয়ারেন্ট জারি করেছে।❐

Show More

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button

Adblock Detected

Please, Deactivate The Adblock Extension