যুক্তরাষ্ট্র

যুক্তরাষ্ট্রে যষ্টিমধুর ক্যান্ডি খেয়ে এক ব্যক্তির মৃত্যু

যুক্তরাষ্ট্রের ম্যাসাচুসেটসে অতিরিক্ত যষ্টিমধু খেয়ে একজন নির্মাণ শ্রমিকের মৃত্যু হয়েছে। ৫৪ বছর বয়সী ওই ব্যক্তির নাম পরিচয় প্রকাশ করা হয় নি।

তিনি প্রতিদিন প্রায় দেড় ব্যাগ করে যষ্টিমধু খেতেন। তবে হঠাৎ একটি ফাস্টফুড রেস্টুরেন্ট হার্ট অ্যাটাক হওয়ার আগ পর্যন্ত তার মধ্যে কোনও লক্ষণ দেখা যায়
নি।

দ্য নিউ ইংল্যান্ড জার্নাল অব মেডিসিনকে ওই ব্যক্তির চিকিৎসকরা বলেন, এজন্য যষ্টিমধুর মধ্যে থাকা গ্লাসিরাইজিন অ্যাসিড দায়ী।

ডা. এলাজার আর এডেলম্যান বলেন, আমরা জানতে পেরেছি সে ঠিকমতো খাওয়া-দাওয়া করতেন না এবং প্রচুর ক্যান্ডি খেতেন। তার রোগের সঙ্গে কি ক্যান্ডি খাওয়ার কোনও সম্পর্ক রয়েছে? প্রশ্ন করেন তিনি।

তিনি বলেন, পরীক্ষা দেখা গেছে যষ্টিমধুর সক্রিয় উপাদান গ্লাসিরাইজিন অ্যাসিডের কারণে উচ্চ রক্তচাপ, হাইপোক্লিমিয়া, মেটাবলিক আলকালোসিস, মারাত্মক অ্যারিথমিয়াস ও কিডনি ফেইলার হতে পারে। আর এর সবগুলোই ওই রোগীর মধ্যে দেখা গেছে। কোনও ব্যক্তির শরীরে রক্তে পটাশিয়ামের মাত্রা বিপজ্জনক পর্যায়ে নিচে নেমে গেলে সেটিকে হাইপোক্লিমিয়া বলে।

সম্প্রতি ওই ব্যক্তি তার ক্যান্ডি খাওয়ার অভ্যাসে পরিবর্তন আনেন। মৃত্যু কয়েক সপ্তাহ আগে তিনি যষ্টিমধুর তৈরি কালো ক্যান্ডি খাওয়া শুরু করেন।

তাই যষ্টিমধুর কারণেই তার মৃত্যু হয়েছে বলেই জানিয়েছেন আরও একজন চিকিৎসক ডা. অ্যান্ড্রু এল লুন্ডকুইস্ট।

তিনি বলেন, অধিক তদন্তে দেখা যায় সম্প্রতি তার যষ্টিমধুর তৈরি ক্যান্ডি খাওয়ার কারণে সম্ভবত হাইপোক্লিমিয়া তৈরি হয়েছিল।❐

Show More

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button

Adblock Detected

Please, Deactivate The Adblock Extension