রাহুল কংগ্রেস সভাপতি ছিলেন আছেন এবং থাকবেন: রণদীপ সুরযেওয়ালা

রূপসী বাংলা কলকাতা ডেস্ক: গান্ধী পরিবারের হাতে থাকুক কংগ্রেসের রাশ৷ লোকসভা ভোটে শোচনীয় পরাজয়ের পরেও গান্ধী পরিবার থেকে বেরতে নারাজ দলের নেতারা৷ রাহুল গান্ধী যতই কংগ্রেস সভাপতির পদ ছেড়ে দেওয়ার দাবিতে অনড় থাকুক না কেন দল তাঁকে ছাড়তে নারাজ৷ সেই কথা আরও একবার বুঝিয়ে দিলেন কংগ্রেস মুখপাত্র রণদীপ সুরযেওয়াল৷ তাঁর সাফ কথা, রাহুল গান্ধী কংগ্রেস সভাপতি ছিলেন, আছেন এবং থাকবেন৷

এদিন কংগ্রেসের প্রথম সারির নেতারা এ কে অ্যান্টনির ডাকে বৈঠকে বসে৷ আগামী কয়েকমাসের মধ্যে হরিয়ানা, জম্মু ও কাশ্মীর, ঝাড়খণ্ড এবং মহারাষ্ট্রে ভোট৷ এই চার রাজ্যে কোন রণনীতিতে এগোবে কংগ্রেস তা ঠিক করতে বৈঠকটি ডাকা হয়৷ উপস্থিত ছিলেন আহমেদ প্যাটেল, মল্লিকার্জুন খাড়গে, গুলাম নবি আজাদ, পি চিদম্বরম, কেসি বেণুগোপাল, জয়রাম রমেশ, আনন্দ শর্মা এবং রণদীপ সুরযেওয়ালা৷ বৈঠকে আলোচনার বিষয় নিয়ে বিস্তারিত জানা না গেলেও সভাপতির প্রশ্নের রণদীপ শুধু জানান, এই বিষয়ে কোনও সন্দেহের অবকাশ নেই৷ রাহুল গান্ধী কংগ্রেস সভাপতি ছিলেন আছেন এবং থাকবেন৷

এদিকে এখনও নাকি পদত্যাগের সিদ্ধান্তে অনড় রাহুল গান্ধী৷ কংগ্রেসের ঘনিষ্ঠ সূত্র বলছে শীর্ষ কংগ্রেস নেতাদের নিজের বিকল্প খোঁজার ভার দিতে চাইছেন কংগ্রেস সভাপতি রাহুল গান্ধী৷ তিনি নাকি বলেছেন, ‘‘আমার বিকল্প খুঁজুন৷’’ এই ইস্যুতে একাধিকবার বৈঠক করেন রাহুল৷ সেখানে দলের নতুন সভাপতি খোঁজার পরামর্শ দেন তিনি৷ কারণ এই বিষয়ে তিনি সিদ্ধান্ত নিয়ে ফেলেছেন, যে সভাপতির পদ থেকে সরছেন তিনি৷

টাইমস অফ ইন্ডিয়া তাদের একটি প্রতিবেদনে জানিয়েছে, যদি সত্যিই কংগ্রেস সভাপতির পদ ছেড়ে দেন রাহুল গান্ধী, তাহলে সেই পদে সাময়িক ভাবে কে বসবেন, তার ভাবনা চিন্তা শুরু হয়েছে৷ প্রতিবেদন অনুযায়ী ইতিমধ্যেই নাম ঠিক করে ফেলেছে কংগ্রেস হাইকম্যাণ্ড৷ অন্তর্বর্তীকালীন কংগ্রেস সভাপতি হিসেবে বর্ষীয়ান নেতা একে অ্যান্টনির নাম উঠে এসেছে৷ যতদিন না নতুন স্থায়ী সভাপতি পাচ্ছে দল, ততদিন পর্যন্ত অ্যান্টনিই দলের যাবতীয় দায়িত্ব সামলাবেন বলে জানা গিয়েছে৷ যদিও, একাধিকবার দলের শীর্ষ নেতারা রাহুল গান্ধীকে সিদ্ধান্ত পুনর্বিবেচনার জন্য আবেদন করে চলেছেন৷ তবে বিশেষ লাভ হয়নি বলে সূত্রের খবর৷

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *