সাংবাদিক নিহতের ঘটনায় পদত্যাগ করতে যাচ্ছেন মাল্টার প্রধানমন্ত্রী

রূপসী বাংলা আন্তর্জাতিক ডেস্ক: দুই বছর আগে সাংবাদিক নিহতের ঘটনায় যেকোনো সময় পদত্যাগের ঘোষণা দিতে পারেন ইউরোপের ক্ষুদ্র দেশ মাল্টার প্রধানমন্ত্রী জোসেফ মাস্কাট। তার পদত্যাগের পর জানুয়ারিতে নতুন প্রধানমন্ত্রী নির্বাচনের আগ পর্যন্ত ডেপুটি প্রধানমন্ত্রী ক্রিস ফিয়ারন ভারপ্রাপ্ত হিসেবে দায়িত্ব পালন করতে পারেন বলে জানা গেছে।

ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম দ্য গার্ডিয়ান এর এক প্রতিবেদনে বলা হয়, ২০১৭ সালের ১৬ অক্টোবর মাল্টায় নিজ বাড়ির অদূরে গাড়িবোমা বিস্ফোরণে ৫৩ বছর বয়সী অনুসন্ধানী সাংবাদিক ড্যাফেন কারুয়ানা গ্যালিজিয়া নিহত হন। তিনি ‘ওয়ান ওম্যান উইকিলিকস’ লিখে খ্যাতি পেয়েছিলেন। মাল্টার সব পত্রিকা মিলিয়ে যত কপি বিক্রি হয়, তার চেয়ে বেশি মানুষ গালিজিয়ার ব্লগ পড়তো।

পানামা পেপার্স কেলেঙ্কারি নিয়ে রিপোর্টের জন্য ইউরোপের সবচেয়ে ক্ষুদ্র দেশটির শাসক গোষ্ঠী এবং মাফিয়া চক্রের উভয় পক্ষেরই পথের কাঁটা হয়ে উঠেছিলেন তিনি।

সম্প্রতি ওই হত্যাকাণ্ডের বিষয়টি নতুন করে সামনে আসলে রাজনৈতিক ও আইনি জটিলতার মুখে পড়েন প্রধানমন্ত্রী। উদ্ভূত পরিস্থিতিতে পদত্যাগের চিন্তাভাবনা করছেন তিনি।

হত্যাকাণ্ডের প্রায় ১৩ মাস পর আটক করা তিন ব্যক্তির বিচার চলছে। তবে যাদের নির্দেশে তারা এই হত্যাকাণ্ড ঘটিয়েছে তাদের আটক করতে পারেনি কর্তৃপক্ষ।

গত সপ্তাহে এই মামলার তদন্তে নাটকীয় গতি আসে। দুই মন্ত্রী ছাড়াও পদত্যাগ করেন মাস্কাটের ডান হাত খ্যাত চিফ অব স্টাফ কেইথ স্কেমব্রি। গত মঙ্গলবার তাকে আটক করে পুলিশ। জিজ্ঞাসাবাদ শেষে অভিযুক্ত করা ছাড়াই বৃহস্পতিবার তাকে মুক্তি দেওয়া হয়। পরে পদত্যাগ করেন তিনি। এছাড়া ইয়টে করে দেশত্যাগের চেষ্টার সময় আটক হয় মূল সন্দেহভাজন ও ব্যবসায়ী ইয়োর্গেন ফেনেচ। ষড়যন্ত্রের তথ্যের বিনিময়ে ওই ব্যবসায়ী ক্ষমার আবেদন করলেও তা বাতিল করে দিয়েছেন আদালত।

গত শুক্রবার মাল্টার মন্ত্রিসভার এক অনির্ধারিত বৈঠক গভীর রাত পর্যন্ত চলে। বৈঠকে ওই হত্যাকাণ্ডের তদন্ত শেষ না হওয়া পর্যন্ত প্রধানমন্ত্রী হিসেবে দায়িত্ব পালনের প্রতিশ্রুতি দেন। কিন্তু পরে তিনি তার সিদ্ধান্ত থেকে সরে আসেন।

স্থানীয় সংবাদমাধ্যম জানিয়েছে, ব্যবসায়ী ইয়োর্গেন ফেনেচকে গালিজিয়া হত্যার নির্দেশদাতা হিসেবে পুলিশ অভিযুক্ত করছে কিনা তা নিশ্চিত হওয়ার পরই পদত্যাগের সময় নির্ধারণ করবেন প্রধানমন্ত্রী।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *