স্বাধীনতার পথে- ২৬ ফেব্রুয়ারি ১৯৭১

২৬ ফেব্রুয়ারি ১৯৭১

পূর্ব পাকিস্তানের সাবেক মুখ্যমন্ত্রী এবং পাকিস্তান ন্যাশনাল লীগের সভাপতি আতাউর রহমান খান এক বিবৃতিতে বলেন, পূর্ব পাকিস্তানের জনসাধারণ ৬ দফা কর্মসূচির জন্য ভোট প্রদান করেছেন এবং এটাই হলো রাজনৈতিক বাস্তবতা। একে অবশ্যই স্বীকার করে নিতে হবে। তিনি বলেন, বাংলাদেশের জনসাধারণ গত ৭ ডিসেম্বর তাদের সার্বভৌমত্ব আদায় করেছে। একে বানচাল করার যে কোনও প্রচেষ্টার পরিণতি হবে মারাত্মক।

ঢাকার জগন্নাথ কলেজের আসন্ন কলেজ ছাত্র সংসদের নির্বাচনকে কেন্দ্র করে কলেজ ছাত্রলীগ শাখার দুই গ্রুপের মধ্যে সংঘর্ষ হয়। সংঘর্ষে পিস্তলের গুলিতে দুইজন ছাত্র আহত হয়। সংবাদ পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।

পাবনা টাউন হল ময়দানে এক জনসভায় বক্তৃতায় আওয়ামী লীগ পার্লামেন্টারি দলের নেতা ক্যাপ্টেন মনসুর আলী পশ্চিম পাকিস্তানি কায়েমী শোষক গোষ্ঠির চক্রান্তের বিরুদ্ধে সুদৃঢ় ও সতর্ক থাকার জন্য আহবান জানিয়ে বলেন, কায়েমী শোষকরা গত ২৩ বছরে বাঙালিদের শেষ রক্তবিন্দু পর্যন্ত নির্মমভাবে শোষণ করেছে। তিনি আরও বলেন, ষড়যন্ত্রকারীরা যদিও জনসাধারণের ওপর আঘাত হানবার সুযোগের প্রতীক্ষা করছে তথাপি দেশে এক নয়া সমাজব্যবস্থা প্রতিষ্ঠায় দৃঢ়প্রতিজ্ঞ, ঐক্যবদ্ধ ও শোষিত জনসাধারণের কাছে তাদের এই চক্রান্তের খেলা ব্যর্থ হতে বাধ্য।

প্রেসিডেন্ট নিক্সন ওয়াশিংটনে বলেন যে, পাকিস্তান ও ভারতের মধ্যে বিরোধ অব্যাহত থাকলে সংশ্লিষ্ট এলাকা অবাঞ্ছিতভাবে বিদেশী প্রভাবাধীন হয়ে পড়বে। তিনি আরও বলেন, উভয় দেশের পারস্পরিক সম্পর্ক শত্রুতা থেকে সহযোগিতায় পরিণত করাই মার্কিন নীতির লক্ষ্য। কংগ্রেসের ৬৫ হাজার শব্দ সম্বলিত বার্ষিক পররাষ্ট্র নীতি রিপোর্টে তিনি এ কথা বলেন।

নওয়াব শাহে (পশ্চিম পাকিস্তানে) অবস্থিত পাকিস্তান পিপলস্‌ পার্টির জনৈক নেতার বাসভবনের বাইরে এক জনসভায় জনতার উদ্দেশ্যে ভাষণে জুলফিকার আলী ভুট্টো বলেন, যদিও বর্তমানে দেশ চরম শাসনতান্ত্রিক সংকটের মধ্য দিয়ে চলছে; তবু ইনশাআল্লাহ আমরা অবশ্যই একটা সংবিধান রচনায় এবং শাসনতান্ত্রিক গণসরকার কায়েমে কৃতকার্য হবো। তিনি বলেন, গণসরকার কায়েম প্রচেষ্টা ব্যর্থ করে দেওয়ার জন্য দেশে বিশেষ মহল ষড়যন্ত্র ও চক্রান্তে লিপ্ত রয়েছে।

মুক্তিযুদ্ধ জাদুঘরের সৌজন্যে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *