করোনাভারত

স্মার্টফোন নেই বলে বাড়ির দেয়ালে ক্লাস

দেয়ালে লেখা বীজগণিতের নানা সূত্র। গলিতে দাঁড়ানো ছাত্রছাত্রীদের সেগুলোই বুঝিয়ে দিচ্ছেন নারী শিক্ষিক।

ভারতের মহারাষ্ট্রের আশা মারাঠি বিদ্যালয়ের প্রধান তাসলিমা বানু হারুন পাঠান। করোনাভাইরাসের মধ্যে স্মার্টফোনের অভাবে অনলাইন ক্লাসে অংশ নিতে না পারা শিক্ষার্থীদের এভাবেই পড়াচ্ছেন তিনি।

দেয়ালে নানা জিনিস ও জ্যামিতির চিত্র এঁকে গরিব ছাত্র-ছাত্রীদের পড়াচ্ছেন আশা মারাঠি বিদ্যালয়ের আরেক শিক্ষক। করোনাভাইরাস লকডাউনের কারণে ভারতের সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ রাখা হয়েছে।

নার্সারি থেকে শুরু করে প্রাইমারি, হাইস্কুল থেকে শুরু করে বিশ্ববিদ্যালয়-মহামারীর শুরু থেকেই ‘আনলক ফোর’ পর্যন্ত একই অবস্থায় রয়েছে। কার্যত গৃহবন্দি শিক্ষক-শিক্ষিকারা। স্কুল প্রাঙ্গণ থেকে যোজন-যোজন দূরে ছাত্রছাত্রীরা।

ব্ল্যাকবোর্ডগুলো চক-ডাস্টারের অপেক্ষায় রয়েছে। তবে ‘আনলক-ফোর’র আওতায় স্বাস্থ্যবিধি মেনে খুলছে কল-কারখানা। নির্দিষ্ট দূরত্ব বজায় রেখে চলছে বাস, প্রাইভেট কার থেকে শুরু করে অন্যান্য পরিবহন।

এরই ধারাবাহিকতায় ১ সেপ্টেম্বর থেকে কিছু স্কুল খুলে দেওয়া হয়েছে। ১৪ নভেম্বরের মধ্যে পর্যায়ক্রমে খোলা হবে অন্য শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলোও। তবে সংক্রমণের আশঙ্কায় অভিভাবকরা ছেলে-মেয়ে স্কুলে পাঠানোর পক্ষে নন।❐

এএফপি

Show More

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button
Close
Close

Adblock Detected

Please, Deactivate The Adblock Extension