যুক্তরাষ্ট্ররাজনীতি

ট্রাম্প ও রিপাবলিকান কেন্দ্রীয় কমিটির কড়া সমালোচনা করলেন নিকি হ্যালি

রিপাবলিকান দল থেকে আগামী প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে প্রার্থিতার লড়াইয়ে শেষ পর্যন্ত টিকে আছেন সাবেক প্রেসিডেন্ট ডনাল্ড ট্রাম্প ও জাতিসংঘে যুক্তরাষ্ট্রের সাবেক রাষ্ট্রদূত নিকি হ্যালি। এরই মধ্যে আইওয়া ককাসে এবং নিউ হ্যাম্পশায়ারের প্রাইমারিতে হেরে গেছেন নিকি হ্যালি। কিন্তু তিনি এখনই এই লড়াই থামিয়ে দিতে চান না।

অন্যদিকে ডনাল্ড ট্রাম্প আগেভাগেই নিজেকে দলের মনোনীত প্রার্থী ঘোষণা দিতে চাইছেন বলে অভিযোগ করেছেন নিকি হ্যালি। বার্তা সংস্থা এএফপি বলেছে, রিপাবলিকান প্রেসিডেন্সিয়াল মনোনয়নের লড়াইয়ে নিকি হ্যালিকে হেয় করতে চাইছেন ট্রাম্প। এর প্রেক্ষিতে রোববার কথা বলেছেন নিকি হ্যালি। প্রতিদ্বন্দ্বিতা থেকে এরই মধ্যে সরে গেছেন বায়োটেক উদ্যোক্তা বিবেক রামাস্বামী, ফ্লোরিডার গভর্নর রন ডিস্যান্তিস। তারা দু’জনেই সমর্থন দিয়েছেন ট্রাম্পকে। ফলে ট্রাম্প এমন সমর্থন পেয়ে এবং জনমত জরিপে এগিয়ে থাকার ফলে নিজেকে প্রার্থী হিসেবে ঘোষণা দিতে চাইছেন। এর প্রেক্ষিতে এনবিসির ‘মিট দ্য প্রেস’ অনুষ্ঠানে কথা বলেন নিকি হ্যালি। তিনি বলেন, মনোনয়নের মধ্য দিয়ে তিনি হেয় করতে পারেন না।

এর আগে তিনি বলেছেন, মনোনয়ন প্রক্রিয়া সবেমাত্র প্রাথমিক পর্যায়ে। শুধু নিউ হ্যাম্পশায়ারে প্রাইমারি হয়েছে এবং আইওয়া ককাসে ভোট হয়েছে। কিন্তু রিপাবলিকান ন্যাশনাল কমিটিকে (আরএনসি) ট্রাম্প চাপ দিচ্ছেন যাতে তাকে খুব শিগগিরই মনোনয়ন দেয়া হয়, তাকে সমর্থন করা হয়। নিকি হ্যালি বলেন, মাত্র দুটি রাজ্যের ফলের ওপর ভিত্তি করে এটা তিনি করতে পারেন না।
মঙ্গলবার ফক্স নিউজকে আরএনসির চেয়ার রোনা ম্যাকডানিয়েল পরিষ্কার করে বলেছেন, ভোটারদের চাওয়া খুব পরিষ্কার। আমাদের ইতিমধ্যে নমিনিকে সমর্থন দিতে একমত হওয়া উচিত। এই মনোনয়ন পেতে যাচ্ছেন ডনাল্ড ট্রাম্প। তার এমন ঘোষণার ফলে কমিটির বিরুদ্ধে সমালোচনা করেছেন সাউথ ক্যারোলাইনার সাবেক গভর্নর নিকি হ্যালি।

তিনি বলেন, এখনও ৪৮টি রাজ্যের ভোট বাকি। আমি মনে করি না এ অবস্থায় আরএনসি এ কথা বলতে পারি। আমি মনে করি এক্ষেত্রে তাদের ওপর ভীষণ চাপ সৃষ্টি করেছেন ট্রাম্প। নিকি হ্যালি বলেন, তিনি কমপক্ষে ৫ই মার্চ মঙ্গলবার পর্যন্ত নির্বাচনী লড়াই চালিয়ে যেতে চান। কারণ, ওইদিন সুপার টুয়েসডে। এদিন একসঙ্গে যুক্তরাষ্ট্রের ১৬টি রাজ্য ও ভূখণ্ডে রিপাবলিকান দলের প্রাইমারি ভোট হবে। এটাই অনেকটা নিশ্চিত করে দেবে প্রার্থিতার বিষয়ে।

নিউ হ্যাম্পশায়ারের পর দলের প্রাইমারি নির্বাচন হবে আগামী ২৫শে ফেব্রুয়ারি নিকি হ্যালির নিজের রাজ্য সাউথ ক্যারোলাইনায়। কিন্তু রিপাবলিকান দলের বেশির ভাগ ওজনদার নেতারা এরই মধ্যে পক্ষ নিয়েছেন ট্রাম্পের। জনমত জরিপ বলছে, নিকি হ্যালিকে বিরাট ব্যবধানে পরাজিত করবেন তিনি। এমন খবরের বিষয়ে এনবিসিকে নিকি হ্যালি বলেছেন, যদি সাউথ ক্যারোলাইনাতেও তিনি হেরে যান, তবুও লড়াইয়ে থাকবেন।

উল্লেখ্য, নিউ হ্যাম্পশায়ারে ডনাল্ড ট্রাম্পের চেয়ে ১১ পয়েন্টে পিছিয়ে আছেন নিকি। ফলে তাকে নিজের রাজ্যে ভাল করা খুবই প্রয়োজন।

Show More

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button

Adblock Detected

Please, Deactivate The Adblock Extension