ট্রাম্প প্রশাসনে বিভক্তির জন্য বিদেশিরাই দায়ী: বোল্টন

রূপসী বাংলা আন্তর্জাতিক ডেস্ক: যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের প্রশাসনে মতভেদ ও বিভক্তির জন্য বিদেশি শক্তি ও মূলধারার গণমধ্যমকে দায়ী করেছেন দেশটির জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা জন বোল্টন। সম্প্রতি ওয়াল স্ট্রিট জার্নালের সিএফও নেটওয়ার্ককে দেয়া সাক্ষাৎকারে তিনি এ কথা বলেন।

বোল্টনের কাছে ওয়াল স্ট্রিট জার্নালের সাংবাদিক জন বাসি জানতে চান, ইরান ও উত্তর কোরিয়া ইস্যুতে কি কারণে মার্কিন প্রশাসন সাংঘর্ষিক ও পরস্পর-বিরোধী বিবৃতি দিচ্ছে।

এ প্রশ্নের উত্তরে মার্কিন প্রশাসনে বিভক্তি সৃষ্টির জন্য বিদেশি শক্তি ও মূলধারার গণমাধ্যমকে দায়ী করেন বোল্টন।

তার ভাষায়, ‘আমাদের বিশ্বাস করার বাস্তবিক কারণ রয়েছে যে- ইরান, উত্তর কোরিয়া, ভেনিজুয়েলা, রাশিয়া ও চীন সিদ্ধান্ত নিয়েছে মার্কিন প্রশাসন সম্পর্কে তারা ভুল তথ্য তুলে ধরবে এবং তারা দেখানোর চেষ্টা করবে যেট্রাম্প প্রশাসনে বিভক্তি রয়েছে।’

এরপর তিনি মার্কিন গণমাধ্যমের ওপর আক্রমণ করে দেশটির সাংবাদিকদেরকে ‘শ্রুতিলেখক’হিসেবে উল্লেখ করেন। বোল্টন বলেন, এসব সাংবাদিক সরকারের মধ্যকার বিভক্তির কথা ছড়াচ্ছেন।

তবে সাংবাদিক বাসি বোল্টনের কথার প্রতিবাদ করলেও মার্কিন নিরাপত্তা উপদেষ্টা তার যুক্তিতে অটল থাকেন।

বোল্টন মার্কিন প্রশাসনে বিভক্তির কথা অস্বীকার করলেও মতভেদের কারণে প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প সেখানে একের পর এক মন্ত্রী ও উপদেষ্টা বরখাস্ত বা পরিবর্তন করেছেন।

সূত্র: পার্স টুডে

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *