যুক্তরাষ্ট্র

যুক্তরাষ্ট্র দূতাবাস থেকে প্রধানমন্ত্রীর অফিস, স্পেনে বোমাতঙ্ক

মাদ্রিদে যুক্তরাষ্ট্র দূতাবাসে একটি লেটার বোমা (ডাকে পাঠানো) পাওয়ার খবর পেয়ে দূতাবাসের আশপাশ এলাকা ঘেরাও করে ফেলে পুলিশ। পরে আশপাশের ভবন খালি করার পর প্যাকেজ বোমাটির সফলভাবে বিস্ফোরণ ঘটানো হয়েছে।

রাশিয়া টুডের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, বৃহস্পতিবারের এ ঘটনায় কোনো হতাহতের খবর পাওয়া যায়নি।

স্প্যানিশ কর্তৃপক্ষ বলছে, বোমা পাওয়ার সঙ্গে সঙ্গেই তারা বিষয়টিকে গুরুত্ব দিয়ে সন্ত্রাসবিরোধী প্রটোকল সক্রিয় করে।

শুধু যুক্তরাষ্ট্র দূতাবাসেই নয়, মাদ্রিদের ইউক্রেনীয় দূতাবাসসহ গত দুই দিনে স্পেনের বিভিন্ন লক্ষ্যবস্তুতে পাঁচটি লেটার বোমা পাঠানো হয়।

ইউক্রেনীয় দূতাবাসে বুধবারের বিস্ফোরণের পর একজন কর্মী সামান্য আহত হয়েছেন। পররাষ্ট্রমন্ত্রী দিমিত্র কুলেবা বিশ্বজুড়ে কিয়েভের সমস্ত দূতাবাসের নিরাপত্তা জোরদারের নির্দেশ দিয়েছেন এবং স্প্যানিশ কর্তৃপক্ষকে ঘটনার দ্রুত ও পুঙ্খানুপুঙ্খ তদন্তের জন্য অনুরোধ করেছেন।

স্পেনের স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী রাফায়েল পেরেজ বৃহস্পতিবার এক প্রেস কনফারেন্সে জানিয়েছেন, চিঠিগুলো বাদামি খামে পাঠানো হয়েছিল। এর ভেতরে পাইরোটেকনিক উপাদান রয়েছে, যা ঠিক বিস্ফোরণ ঘটাতে সক্ষম না হলেও অগ্নিসংযোগের কারণ। প্যাকেজগুলো হাতে বানানো এবং স্পেন থেকেই এগুলো পাঠানো হয়েছে।

পেরেজের মতে, এ চিঠিগুলোর বিষয়ে আতঙ্কিত হওয়ার কিছু নেই, তিনি জনগণকে শান্ত থাকার আহ্বান জানান।

যদিও স্পেনের প্রধানমন্ত্রী পেদ্রো সানচেজের কাছেও একই ধরনের চিঠি পাঠানো হয়েছিল, যা পরে দেশটির বোম স্কোয়াড নিষ্পত্তি করে।

স্পেনের জাতীয় আদালত জানিয়েছেন, আনুষ্ঠানিকভাবে তারা ঘটনার তদন্ত শুরু করেছেন।

Show More

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button

Adblock Detected

Please, Deactivate The Adblock Extension